বুদ্ধদেবের চিকিৎসার সমস্ত খরচ মেটাচ্ছে CPM! ১১ দিনে মোট কত বিল হল হাসপাতালে?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী (Former Chief Minister of West Bengal) বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য (Buddhadeb Bhattacharya)। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন আগের থেকে এখন অনেকটাই ভাল আছেন বুদ্ধবাবু। সংক্রমণও নেই বললেই চলে। দীর্ঘ কঠিন লড়াইয়ের পর আজ ১২ দিনের মাথায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেতে চলেছেন কমরেড। ইতিমধ্যেই তাকে নিতে পৌঁছে গিয়েছেন স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য।

আজ পাম অ্যাভিনিউয়ের সেই কামরা ফিরে গেলেও আপাতত চিকিৎসকদের নজরদারিতেই থাকবেন বুদ্ধবাবু। বাড়িতেই থাকবে মেডিকেল সাপোর্ট। গতকালই হোম কেয়ারের পরিকাঠামো নির্মাণে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে যান উডল্যান্ডস হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা। বেড সাইড মনিটর, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, নেবুলাইজারের ব্যবস্থা করা হয়ে গিয়েছে। জীবাণুনাশের কাজও হয়েছে করা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, বুদ্ধদেবের সংক্রামিত হ‌ওয়ার অন্যতম একটি কারণ তার এক কামরার ছোট্ট সেই ঘর। তবে হাজারো সমস্যা থাকলেও নিজের সেই ঘর থেকে সরতে নারাজ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তাই তার স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে সেই জায়গা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, এগারো দিন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা চালাতে মোট বিল হয়েছে প্রায় সাড়ে দশ লক্ষ টাকা। এর মধ্যে অর্ধেক অর্থাৎ পাঁচ লক্ষ‌ টাকা সিপিএম ইতিমধ্যে মিটিয়ে দিয়েছে। বাকি হাফ টাকাও দলই মেটাতে বলে জানা গিয়েছে। তবে জানা গিয়েছে, এই ১১ দিন ধরে ধরে মেডিক্যাল বোর্ডের যে ১১ জন চিকিৎসক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর চিকিৎসায় রয়েছেন তাদের কেউই কনসালটেশন ফি নিতে চাননি।

buddhadeb

গতকালই হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ফুসফুসে সংক্রমণ এখন নেই বুদ্ধুদেবের। ভালো আছেন তিনি। গান শুনছেন হাসপাতালের কেবিনে। উঠে দাঁড়াচ্ছেন। মাঝেমাঝে বেড থেকে নেমে হাঁটাচলাও করেছেন বলে জানা গিয়েছে। ফের একবার রোগের সাথে লড়ে আপন মেজাজে বাড়ি ফিরছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর