‘কাকে রক্ষা করতে চাইছেন?’, রাজ্যের আইনজীবীকে কেন একথা বললেন বিচারপতি ঘোষ?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ তৃণমূলের ব্রিগেডের দিনেই সন্দেশখালিতে (Sandeshkhali) সভা করতে চেয়ে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আগামী ১০ই মার্চ সভা করার অনুমতি চেয়েছিলেন শুভেন্দু। বিরোধী দলনেতার সেই আবেদনে সাড়া দিল কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)।

   

এদিন মামলার শুনানিতে বিচারপতি জয় সেনগুপ্তর নির্দেশ, ১০ মার্চ সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত সভা করতে পারবেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে সভায় কোনো রকম উস্কানিমূলক বক্তব্য পেশ করা যাবে না বলে স্পষ্ট জানিয়েছে হাইকোর্ট। ওদিকে যে জায়গায় সভা করতে চেয়ে শুভেন্দু আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সেখানে আপাতত সভা করতে পারবেন না বিরোধী দলনেতা।

বিচারপতি সেনগুপ্তের বেঞ্চের নির্দেশ, ন্যাজাট থানার অন্তর্গত দক্ষিণ আক্রাতলায় শুভেন্দু সভা করতে পারেন। এদিন শুনানি চলাকালীন রাজ্য সরকারের আইনজীবীর উদ্দেশে বিচারপতি বলেন, “সভার অনুমতি না দিয়ে কাকে রক্ষা করতে চাইছেন আপনারা? কোনও গোলমাল না থাকায় সভাস্থলে ১৪৪ ধারা ছিল না। সভা আটকাতেই কি মামলার আগেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে?

আরও পড়ুন: হাতে মাত্র দু’ঘন্টা! ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে দক্ষিণবঙ্গের এই সব জেলায়: আবহাওয়ার খবর

প্রসঙ্গত, আগামী ১০ মার্চ সন্দেশখালিতে সভা করতে চেয়েছিলেন শুভেন্দু। কিন্তু পুলিশ তাতে অনুমতি দেয়নি। এর পরই সভার অনুমতি চেয়ে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন বিরোধী দলনেতা। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতেই বিচারপতি সেনগুপ্তের প্রশ্নের মুখে পড়ে রাজ্য।

mamata suvendu hc

আরও পড়ুন: ED পেটানোর সময় শাহজাহানের ফোনে কোন বিধায়কের ফোন? কী কথা হয়েছিল? সব ফাঁস করল CBI

উল্লেখ্য, ওই একই দিনে ব্রিগেডে তৃণমূলের জনগর্জন সভা। এবার ১০ মার্চ ব্রিগেডের সভার পর উত্তর ২৪ পরগনাতেই যাবেন মমতা। সেখানে হাবড়ায় সভা মুখ্যমন্ত্রীর। অন্যদিকে উত্তর ২৪ পরগনারই সন্দেশখালিতে সভা করবেন বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর