ভোটের আগেই জোর স্বস্তিতে রেখা! BJP প্রার্থীকে নিয়ে বিরাট নির্দেশ কলকাতা হাই কোর্টের

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: পিয়ালী দাস গঙ্গাধর কয়ালের পর এবার সন্দেশখালির (Sandeshkhali) ভাইরাল ভিডিও কাণ্ডে বিরাট স্বস্তি পেলেন সন্দেশখালির বিজেপি প্রার্থী (BJP Candidate) রেখা পাত্র (Rekha Patra)। সন্দেশখালির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিগত কয়েক মাস ধরেই উত্তাল বঙ্গ রাজনীতি। বিশেষ করে এই ভোটের মুখে সন্দেশখালির ঘটনা যেন নতুন করে পালে হাওয়া পাচ্ছে।

মাঝে কিছুদিন আগেই সন্দেশখালির ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর ভিডিও। সেখানেই উঠে আসে কিছু বিস্ফোরক তথ্য। এক মহিলা সেই ভিডিওতে গুরুতর অভিযোগ এনে জানিয়েছিলেন সন্দেশখালির নারী নির্যাতনের ঘটনা নাকি সাজানো। আসলে তাদের দিয়ে  সাদা কাগজে সই করিয়ে নিয়ে সাজানো হয়েছিল ধর্ষণের ঘটনা।

ওই মহিলা সরাসরি নাম নিয়ে অভিযোগ তুলেছিলেন সন্দেশখালি বিজেপি প্রার্থী রেখা পাত্র এবং সন্দেশখালীর মন্ডল ২ সভাপতি গঙ্গাধর কয়েলের দিকে।এই ভাইরাল ভিডিয়োর প্রেক্ষিতেই গত ১০ মে সন্দেশখালি থানায় রেখা পাত্র এবং গঙ্গাধর কয়ালের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন এক মহিলা।

তাঁর অভিযোগে ছিল রেখা পাত্র আর গঙ্গাধর কয়াল-ই নাকি পরিকল্পনা করে মহিলাদের সম্মানহানি করেছেন।এই অভিযোগের ভিত্তিতে গঙ্গাধরকে পুলিশ তলব করেছিল। কিন্তু তিনি হাজিরা  না দিয়ে সরাসরি কলকাতা  হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এই মামলায় ইতিমধ্যেই গঙ্গাধরকে রক্ষাকবচ দিয়েছিল হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: মমতার মন্তব্যের পাল্টা! এবার রাস্তায় নামছেন সাধু সন্ন্যাসীরা, ২৪ মে যা বিরাট কাণ্ড

এবার রেখা পাত্রকেও রক্ষাকবচ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত।রেখা পাত্রের আবেদনে মঙ্গলবার আদালত নির্দেশ দিয়েছে ১৪ই জুন পর্যন্ত ওই এফ আই আর এর ভিত্তিতে কোন পদক্ষেপ নিতে পারবেনা পুলিশ। আগামী ১২ই জুন আবার  এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

Rekha Patra property and assets

এদিন আদালতে এই মামলা চলাকালীন বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত বলেছেন, ‘যে ঘটনার ভিত্তিতে রেখা পাত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে, সেই ঘটনায় অভিযুক্তদের এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। অথচ রেখা পাত্রের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে চাইছে তারা। এই তদন্ত আপাতত স্থগিত থাকবে। ১৪ জুন পর্যন্ত স্থগিতাদেশ দিচ্ছে আদালত।’

Anita Dutta
Anita Dutta

অনিতা দত্ত, বাংলা হান্টের কনটেন্ট রাইটার। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৪ বছরের বেশি সময় ধরে সাংবাদিকতা পেশার সাথে যুক্ত।

সম্পর্কিত খবর