কেঁচো খুঁড়তে কেউটে! খাস কলকাতার একই জায়গায় ১৪টি বেআইনি নির্মাণ! কড়া নির্দেশ জাস্টিস সিনহার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বেআইনি নির্মাণ নিয়ে আগেও একাধিক মামলায় কড়া রায় দিয়েছেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা (Justice Amrita Sinha)। আর কিছুদিন আগের গার্ডেনরিচ বিপর্যয়ের পর আরও কঠোর কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)। খাস কলকাতায় একই জায়গায় পর পর চোদ্দটি বেআইনি নির্মাণ (illegal Construction)। যা শুনে বিস্মিত বিচারপতি সিনহা। অবিলম্বে সেই সব অবৈধ নির্মাণ ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিল আদালত।

   

ঘটনাস্থল ফের সেই নারকেলডাঙ্গা। এর আগে এই এলাকায় বেআইনি নির্মাণ নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছিল পুলিশ। নারকেলডাঙ্গা থানার ওসিকে সশরীরে হাজিরার দেওয়ার নির্দেশও দিয়েছিল আদালত। এবার ফের ওই থানা এলাকার তিন নম্বর বরোর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে পর পর ১৪ টি বেআইনি নির্মাণ পেল কলকাতা পুরসভা।

আগেই ওই এলাকায় একাধিক অবৈধ নির্মাণের অভিযোগে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয়েছিল মামলা। সেই মামলার প্রেক্ষিতেই পুরসভার আধিকারিকদের জায়গা পরিদর্শনের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি সিনহা। আদালতের নির্দেশ মেনে সেই দেখে রিপোর্ট জমা দিয়েছে পুরসভা। আর সেই রিপোর্ট দেখেই রীতিমতো চোখ কপালে ওঠার জোগাড়।

মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি ছিল বিচারপতি সিনহার এজলাসে। আদালতে পুরসভার তিন ইঞ্জিনিয়ার রিপোর্ট জমা দিয়েছেন। সেই রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের ৪৪/১ ক্যানাল ইস্ট রোডে মোট ১৪ টি অনুমোদনহীন নির্মাণ রয়েছে। যা শুনে বিস্ময় প্রকাশ করেন বিচারপতি সিনহা। বলেন, “এতদিন কলকাতা পুরসভা কী করছিল?” পরপর এতগুলি অবৈধ নির্মাণ কিভাবে গড়ে উঠল সেই নিয়ে প্রশ্ন ওঠে আদালতে।

high court

আরও পড়ুন: আরও গরম বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে! আজ কখন কোথায় কোথায় বৃষ্টি? আবহাওয়ার খবর

এদিকে পুরসভার আইনজীবী জানান, সংশ্লিষ্ট বেআইনি নির্মাণগুলিকে পুর আইনের ৪০১ নম্বর ধারায় নোটিস দেওয়া হয়েছে। বিচারপতি সিনহার নির্দেশ, অবিলম্বে ডিজি বিল্ডিংকে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ করতে হবে। পাশাপাশি আগামী সাত সপ্তাহের মধ্যে শহর কলকাতার ওই ১৪ টি বেআইনি নির্মাণ ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেন বিচারপতি সিনহা।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর