ভুলে ভর্তি টেট পরীক্ষার প্রশ্নপত্র! পর্ষদের ওপর চাপ বাড়াল কলকাতা হাই কোর্ট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২০২২ সালের টেট পরীক্ষায় (Primary TET 2022) একাধিক প্রশ্ন ভুল থাকার অভিযোগকে কেন্দ্র করে আগেই মামলা হয়েছে। প্রথমে জানা গিয়েছিল, ১৫০টি প্রশ্নের মধ্যে ১৩টি প্রশ্ন ভুল ছিল। এরপর সেই সংখ্যা ১৫, ২১ হয়ে এখন দাঁড়িয়েছে ২৩-এ। এতগুলো প্রশ্ন কী করে ভুল হতে পারে? ইতিমধ্যেই তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta High Court)।

   

টেট পরীক্ষার ওপর নির্ভর করে অগুনতি চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ। কেন তাহলে এই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র (Question Paper) তৈরির সময় যথাযথ সতর্কতা অবলম্বন করা হয়নি? আদালতের নির্দেশ, যে প্রশ্নগুলি নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে সেগুলি এবার বিশেষজ্ঞদের দেখাতে হবে। সঠিক প্রশ্ন কী হবে? এমনকি সেই প্রশ্নের সঠিক উত্তর কী হবে সেটাও জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একটি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র এতগুলি প্রশ্ন কীভাবে ভুল (Mistake) থাকতে পারে? পর্ষদের কাছ থেকে সেই উত্তরও আদালত জানতে চেয়েছে বলে খবর। পরীক্ষার্থীদের দাবি, প্রশ্নপত্র ভুল প্রশ্ন থাকায় পরীক্ষার সময় তাঁদের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। যে সকল পরীক্ষার্থী সংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুলি লিখেছেন তাঁদের পুরো নম্বর দেওয়ার আবেদনও জানিয়েছে তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ ত্রাণে যা আসবে ঝেড়ে ফাঁক করে দেবে তৃণমূল! জলপাইগুড়ি দুর্যোগ নিয়ে ফের বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

ভুলের পক্ষে যে বই আছে তার একটি লিস্ট বানিয়ে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এটি আবার বিশেষজ্ঞদের দেখাতে হবে। এরপর বিশেষজ্ঞদের থেকে মতামত নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলা হয়েছে।

calcutta high court on ssc recruitment scam

জানা যাচ্ছে, বিশেষজ্ঞদের থেকে প্রত্যেকটি প্রশ্নের বিষয়ে মতামত নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এরপর তা দিয়ে লিখিত রিপোর্ট বানিয়ে আদালতে জমা করতে হবে। আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে পর্ষদকে এই কাজ সম্পন্ন করতে হবে। একইসঙ্গে আদালত জানিয়েছে, যে ২৩টি প্রশ্ন ঘিরে বিতর্ক চলছে, সেগুলি বাদে নতুন করে আর কোনও প্রশ্ন নিয়ে বিতর্ক তৈরি করা যাবে না।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর