নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে বড়সড় রহস্যভেদের পথে CBI, চেয়ে পাঠানো হল ৩২৫ জনের তালিকা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় রহস্য উন্মোচন করতে আরও তৎপর কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। দুর্নীতির গোড়ায় পৌঁছাতে এবার মানিক ভট্টাচাৰ্য ঘনিষ্ঠ তাপস মণ্ডলকে (Tapas Mandal) তলব করল সিবিআই (CBI)। সেইমত বুধবার নিজামে যান তাপস মণ্ডল। তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও একবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল সিবিআই।

   

কী জানা যাচ্ছে? সিবিআই তরফে অভিযোগ, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা তৃণমূল নেতা মানিকের নির্দেশে তাপস ক্যান্ডিডেটদের থেকে বহু টাকা সংগ্রহ করেছেন। এরপরই এদিন মোট ৩২৫ জনের তালিকা চাওয়া হয়েছে। আরেক তদন্তকারী সংস্থা ইডি পূর্বে এই তাপস মণ্ডলকে ৫ বার তলব করেছিল । নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডির বিশেষ আদালতে হাজিরা দিয়েছিলেন মানিক ভট্টাচাৰ্য স্ত্রী, মানিকের পুত্র এবং মানিক ঘনিষ্ঠ তাপস মন্ডল।

প্রসঙ্গত, গত ৭ জানুয়ারি তাপস মন্ডল এজলাসে হাজিরা দেন। তাঁর আইনজীবীর আবেদন ছিল , তাঁর মক্কেলকে যতবারই ইডি ডেকেছে তিঁনি হাজির হয়েছেন। যেহেতু তাপস মন্ডলের থেকে কোনো রিকভারি নেই তাই যে কোনো শর্তে তাঁকে জামিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক। এরপর আদালতে পাল্টা ইডির আইনজীবি জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, তাপস মন্ডল অল বেঙ্গল টিচার্স ট্রেনিং এচিভার্স এসোসিয়েশন প্রেসিডেন্ট। ” নো মানি নো তাপস, নো তাপস নো মানি”।

তবে এবার ইডি নয়, নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বুধবার এবার তাপস মণ্ডলকে নিজামে তলব করে সিবিআই। তদন্তকারীদের অভিযোগ, ক্যান্ডিডেট দের থেকে মানিকের হয়ে টাকা সংগ্রহ করত তাপস। দুর্নীতির সমস্ত কিছুই তিঁনি জানতেন। তাপস না থাকলে এই বিপুল পরিমান দুর্নীতি হত না। দু পক্ষের সওয়াল জবাব শেষে বিচারপতি আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি তাপস মন্ডল, শতরূপা ভট্টাচার্য, সৌভিক ভট্টাচাৰ্যকে আদালতে সশরীরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেয়।

cbi

পাশাপাশি মানিক ভট্টাচাৰ্য অফ লাইনে যে সব ক্যান্ডিডেটদেরকে রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন সেই তালিকা সম্পর্কে তিঁনি কী কী জানেন সেই বিষয়ে তাপস মণ্ডলের কাছে ক্যান্ডিডেটদের লিস্ট চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তাঁর বয়ান রেকর্ড করে হয়েছে বলেও জানিয়েছে সিবিআই।

সম্পর্কিত খবর