বাচ্চাদের খিচুড়িতেও দুর্নীতির সাপ-ব্যাঙ-টিকটিকি? এবার মিড ডে মিল নিয়েও হবে CBI তদন্ত

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : কমবেশি রাজ্যের প্রতিটি সেক্টরই এখন ইডির (Enforcement Directorate) ঘেরাটোপে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের একাধিক বিষয় নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে ED এই Central Bureau of Investigation। তবে এবার বোধহয় সেই তালিকা লম্বা হতে চলেছে। কারণ এবার রাজ্যে মিড ডে মিলে (Mid Day MealPradhan Mantri Poshan Shakti Nirman) অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের ‘সিবিআই তদন্তের সুপারিশ’ ঘিরে শুরু হল রাজনৈতিক চাপানউতর। দিনকয়েক আগেই এই বিষয়ে মুখ খুলেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

mid day meal

মিড ডে মিল দুর্নীতি নিয়ে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ

সম্প্রতি রাজ্যের ‘মিড ডে মিল’ (Mid Day Meal) অনিয়ম প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার জানিয়েছেন, ‘মিড ডে মিল নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে প্রচুর অনিয়ম দেখা গিয়েছে। কেন্দ্রীয় পরিদর্শক দল একাধিকবার এসেছে এবং বিভিন্ন অনিয়ম ধরা পড়েছে। এক্ষেত্রে একজনের কথার সঙ্গে অন্যজনের কথার কোনও মিল নেই। তাই CBI তদন্তের জন্য চিঠি লিখেছে শিক্ষা মন্ত্রক।’

আরও পড়ুন : শিয়ালদহ রুটে শনি-রবি বাতিল একাধিক ট্রেন, সমস্যায় পড়ার আগেই দেখে নিন তালিকা

কী বললেন সুভাষ সরকার

এখানেই থেমে না থেকে তিনি আরও বলেন, ‘অনেকে বলছেন, রাজ্য সরকার নাকি জেনারেল কনসেন্ট প্রত্যাহার করেছে। কিন্তু, এক্ষেত্রে তা বাধা হবে না। কারণ এই স্কিমটি কেন্দ্রীয় সরকারের স্কিম এবং তার অর্থ নয়ছয় নিয়ে কথা বলা হয়েছে। আর এই তদন্ত হওয়া দরকার। কারণ শিশুর খাবার নয়ছয় করা হয়েছে।’ তারপর থেকেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

আরও পড়ুন : ‘৭২ ঘন্টা পর…’, মমতার বিরুদ্ধে থানায় শুভেন্দু, ডেডলাইনও বেঁধে দিলেন BJP নেতা

সরব হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও সরব হয়েছিলেন এই প্রসঙ্গে। তার লেখা চিঠি পৌঁছে গেছিল কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর দরবারে। এর আগে শুভেন্দু অধিকারীর দাবি ছিল, মিড ডে মিলের বরাদ্দ অর্থ দিয়ে বগটুই কাণ্ডের ক্ষতিপূরণ দিয়েছে রাজ্য সরকার। সম্প্রতি তিনি বলেন, ‘মিড ডে মিলে CBI তদন্ত হচ্ছে। মিড ডে মিলের অর্থ দিয়ে বগটুই এবং করমণ্ডল এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে।’

main qimg 93d1b9f0a5cde586c4a59a1f5bfe73b6 lq

কী বলছে তৃণমূল?

অন্য দিকে, শুক্রবার রাতে শুভেন্দু অধিকারীর সিবিআই তদন্তের সুপারিশ সংক্রান্ত মন্তব্যকে খোঁচা দিয়ে শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসুও সরব হয়েছেন। সহজ কথায় তিনি বিরোধী দলনেতার দাবিকে ‘এজেন্সি রাজনীতি’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন। আর এবার কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের মুখ খুলেছেন তৃণমূল নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। তার কথায়, ‘১০০ দিনের টাকা বন্ধ করে দিয়েছে। এখন ছোট ছোট বাচ্চাদের খাবার দাবার নিয়ে রাজনীতি করছে।বাংলাকে বঞ্চনা করলে ফল পাবে।’

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর