অযোধ্যায় রাম মন্দির উদ্বোধনে যাচ্ছেন মমতা? তৃণমূল সূত্রে মিলল বড় খবর

বাংলা হান্ট ডেস্ক : অযোধ্যার (Ayodhya) ‘রাম মন্দির’ (Ram Mandir) নিয়ে রাজনৈতিক চর্চা তুঙ্গে। ইতিমধ্যেই আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় রাম মন্দির উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বয়কট করেছে CPIM, আর এবার বোধহয় সেই একই পথে হাঁটতে চলেছে তৃণমূলও (Trinamool)। যদিও এই নিয়ে প্রকাশ্যে নিরব রয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তবে দলীয় সূত্রে এমনটাই খবর।

   

সূত্রের খবর, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিংবা তার দলের কোনও প্রতিনিধি অযোধ্যায় রাম মন্দিরের উদ্বোধনে অংশ নেবেননা। এইদিন এক সাক্ষাৎকারে কথা বলতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বেশ স্পষ্ট ভাষায় বলেন, ‘যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। আমন্ত্রণপত্র এসেছে না আসেনি তা আমি অবশ্য জানি না। তবে অংশ নেওয়ার প্রশ্ন নেই, সেটা জানি।’

কারণ হিসেবে উঠে এসেছে ধর্মীয় মেরুকরণের তত্ব। আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও ঘোষণা না হলেও দলীয় সূত্রে জানা গেছে, যেহেতু ‘রাম মন্দির’কে সামনে রেখেই ভোট বৈতরণী পার করতে মরিয়া বিজেপি। তাই দলের সুপ্রিমো সেই পূজায় অংশ নিতে পারেননা। কথাপ্রসঙ্গে কুণাল ঘোষও বলেন, ‘BJP রামকে নির্বাচনী অ্যাজেন্ডা হিসেবে ব্যবহার করে। ভোটের জন্য ব্যবহার করে। ফলে ওদের কোনও ইভেন্ট আমরা সমর্থন করি না।’

আরও পড়ুন: চাকরি দেওয়ার নামে ‘প্রতারণা’, তৃণমূল যুব নেতার লাখ টাকা হাতিয়ে গায়েব দলেরই কর্মী

সূত্রের খবর, আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষ। তারপর থেকেই মন্দির উদ্বোধন নিয়ে চড়ছে রাজনীতির পারদ। একদিকে যেখানে রামভক্তদের মুখে নরেন্দ্র মোদীর জয়জয়কার, অন্যদিকে তখন এই বিষয়টাকে হাতিয়ার করে মাঠে নেমে পড়েছে বিরোধীরাও। এমতাবস্থায় কে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন আর কে বয়কট করেন তার উপর নজর রয়েছে গোটা দেশেরই।

আরও পড়ুন : সময় মাত্র ৮৪ সেকেন্ড, এদিক ওদিক হলেই বড় বিপদ! রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠার সময় বেঁধে দিল পণ্ডিতরা

তবে কুণাল ঘোষের বক্তব্য থেকেই বেশ স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে রাম মন্দির নিয়ে তৃণমূলের দলগত অবস্থান। অর্থাৎ মোদী সরকার এই অনুষ্ঠানকে সবকিছুর উর্ধ্বে রাখলেও তৃণমূল এই ঢক্কানিনাদকে লোকসভার অন্যতম প্রধান স্ট্র্যাটেজি হিসেবেই দেখছে। সেই সাথে CPIM-এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে, তারা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকছেননা। যদিও ‘হাত শিবির’র সিদ্ধান্ত এখনও অজানা।

আরও পড়ুন : এবার অন্যরকম প্রশ্নপত্র! মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে বড় আপডেট, কড়া সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ

manir sixteen nine

যাইহোক নেতা মন্ত্রীদের পাশাপাশি এইদিন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন তাবড় তাবড় বলি তারকাদের নাম। সেই সাথে দেশ বিদেশের নানা নামিদামি ব্যক্তিত্ব থেকে শুরু করে সাধু সন্ন্যাসী প্রচুর মানুষের সমাগম হবে এইদিন। ইতিমধ্যেই অযোধ্যার কোণায় কোণায় পৌঁছে গেছে রামভক্তরা। এবং সকল মানুষের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে গোটা অযোধ্যাকে মুড়ে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তা রক্ষীদের নজরদারিতে।