টাইমলাইনবিশেষভারতআন্তর্জাতিক

লুডু খেলতে খেলতে প্রেম, ভারতে এসে প্রেমিককে বিয়ে পাকিস্তানি তরুণীর! গ্রেফতার করল পুলিশ

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কথায় বলে প্রেম অন্ধ। ভালোবাসায় (Love) মজে মানুষ কী কী না করে তার প্রমাণ তো প্রায়শই আমরা পেয়ে থাকি। কিন্তু প্রেমে পড়ে নিজের দেশ ছেড়ে পালিয়ে এসে জেল খাটার ঘটনা একেবারেই আর পাঁচটা ঘটনার মত না। এই রকমই এক ঘটনা ঘটেছে ভারত (India) এবং পাকিস্তানের (Pakistan) দুই যুবক যুবতীর মধ্যে। আজকাল অনলাইনে (Online) আলাপ হওয়া তো ‘জলভাত’।

ফেসবুকে আলাপ হয়ে কতো তরুণ তরুণী ভালোলাগা ভালোবাসা থেকে বিয়ে পর্যন্ত করে নেন। কিন্তু এই যুগলের আলাপ অনলাইন লুডো খেলতে গিয়ে। লুডো খেলতে খেলতেই ভালোলেগে যায় একে অন্যকে। ধীরে ধীরে সম্পর্ক আগে গড়ায় তারপর প্রেম। কিন্তু তাঁদের ভালোবাসা কোনো আন্তর্জাতিক সীমান্ত মানেনি। ভালোবাসার টানেই খোদ পাকিস্তান থেকে সীমান্ত পার করে এলেন পাকিস্তানী তরুণী ইকরা জিওয়ানি। আর এসেই গ্রেপ্তার (Arrested) হলেন তিনি।

কারণ আর কিছুই না, তিনি সীমান্তের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করেছেন। তাঁর সাথে সাথে গ্রেপ্তার হন তাঁর ভারতীয় প্রেমিক মুলায়ম সিংহ যাদবও। ইকরা ভারতে পালিয়ে এলে তাঁরা দুজনে বেশ গুছিয়ে সংসার করছিলেন বেঙ্গালুরুতে। কিন্তু সুখের ঘরে কড়া নাড়লো পুলিশ। এই সোমবার গ্রেপ্তার হন দুজনে। গ্রেপ্তারীর কারণ স্বরূপ জানানো হয় যে, যেহেতু ইকরার বয়স ১৯, এবং সে একজন নাবালিকা। তাই তাঁকে বিয়ে করার অনুমুতি মিলছে না মুলায়মের।

পাশাপাশি ইকরা ভারতের সীমান্তের কোনো নিয়ম না মেনেই ভারতে প্রবেশ করে ছিলেন। বেঙ্গালুরুতে ইকরা তাঁর নাম বদলে ফেলে ছিলেন। এখানে থাকাকালীন তাঁর নাম হয় রাভা যাদব। মুলায়মের সাথে তাঁর হিন্দু নিয়মেই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। এমনকী ইকরার নামে জাল আধার কার্ডও বানিয়ে দিয়েছিলেন তাঁর প্রেমিক।

pak woman arrest

পুলিশ সূত্রে খবর, পেশায় নিরাপত্তারক্ষী মুলায়ম উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা। তবে, গত সাত বছর ধরে বেঙ্গালুরুতেই বসবাস করছিলেন। তাঁর দাবি, ইকরা তাকে হায়দ্রাবাদে থাকেন বলায় তিনি ভাবতেও পারেন নি ইকরা পাকিস্তানি হবেন। পুলিশ ইকরা এবং মুলায়মের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরুর পাশাপাশি বাড়িমালিক গোবিন্দের বিরুদ্ধেও তদন্ত শুরু করেছে।

Related Articles