‘দশরথকে প্ল্যানচেটে ডাকা হোক’, স্টেজ শো করতে গিয়ে ভগবান রামকে নিয়ে কটাক্ষ নচিকেতার, ক্ষুব্ধ নেটজনতা

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বিগত কয়েকদিন ধরেই মিডিয়া লাইমলাইটে বিরাজ করছেন স্বনামধন্য সঙ্গীত শিল্পী নচিকেতা (Nachiketa Chakraborty)। দিনকয়েক আগেই উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। শীতের সন্ধ্যায় জমে উঠেছিল নচিকেতার গানের আসর। তার মাঝেই মেজাজ হারিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দেন। মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসে অশ্লীল শব্দ। আর এবার গায়কের নিশানায় রাম মন্দির (Ram Mandir)।

   

এইদিন আরামবাগ (Arambagh) উৎসবে এসে এমন এক গান গাইলেন যা শুনে সকলেই হতবাক। দর্শক তো বটেই সেই সাথে বিরক্ত সোশ্যাল মিডিয়ার লোকজনও। কোনোরকম রাখঢাক না রেখেই ভগবান রামের জন্মভূমি (Birth Place Of Ram) নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তিনি। গানের মোড়কে তিনি বলেন, ‘এই রাম জন্মভূমি নিয়ে প্রচুর ধ্যাস্টামি চলে আমাদের দেশে। এটা তো আসলে ধর্মের ব্যাপার নয়, এটা আসলে রাজনৈতিক খেলা।’

সেই সাথে নচিকেতার প্রশ্ন, আমরা যদি রামে বিশ্বাস করি তাহলে দশরথে নয় কেন? এমনকি অবজ্ঞার সুরে এটাও বলেন, রামের জন্মভূমি জানতে হলে দশরথকে প্ল্যানচেটে ডাকা হোক। তিনিই বলতে পারবেন কোথায় রাম জন্মেছে! নয়ত কখনও অযোধ্যা, কখনও কিষকিন্ধা আবার কখনও ধর্মতলায় ঘন্টায় ঘন্টায় রাম জন্মাতে থাকবে। গানটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই ছিছিক্কার পড়ে গেছে চারিদিকে।

আরও পড়ুন : মাথায় হাত কংগ্রেসের! লোকসভায় ৪০০-র বেশি আসন পাবে বিজেপি, দাবি রাহুল গান্ধীর ঘনিষ্ঠের

নচিকেতার এই গানের প্রেক্ষিতে মানুষের পাল্টা প্রশ্ন, কোনোকিছুর বিরুদ্ধে বলতে গেলেই যে কটূ শব্দ ব্যবহার করতে হবে তা তো নয়। তাছাড়া যিনি রামে বিশ্বাস করেন তিনি যে দশরথে বিশ্বাস করেনা তা কে বলেছে? এক নেটিজন নচিকেতার ‘ধ্যাস্টামো’ শব্দটিকে উল্লেখ করে লিখেছেন, ‘মানুষের বিশ্বাস নিয়ে নোংরামো কি না করলেই নয়? তাছাড়া রাম ঘন্টায় ঘন্টায় কেন, রাম তো সেকেন্ডে সেকেন্ডে জন্মায়। আমরা বিশ্বাস করি প্রতিটি মানুষের মধ্যে রাম বাস করেন। আপনি জোর করে আমাদের বিশ্বাস বদলাতে চাইলেও তা বদলাবেনা।’

আরও পড়ুন : এইদিন খুলবে আবু ধাবির প্রথম হিন্দু মন্দিরের দরজা, উদ্বোধনের জন্য ডাক পেলেন নরেন্দ্র মোদী

nachiketa

অপর এক নেটিজন লিখেছেন, ‘নিজের জন্মভূমি বাংলাদেশ থেকে চলে এসেছিল না এই মানুষটি? সত্যিই রুচিবোধ নিয়ে প্রশ্ন উঠেগেল। কার অনুপ্রেরণায় এই গান খুঁজে দেখতে হবে।’ অপর এক ইউজার সনাতন ধর্মের জয়জয়াকার করে লিখেছেন, ‘আমরা হিন্দুরা অনেক সহ্য করে নিই। আর তাই গোটা দুনিয়ায় আজ সনাতন ধর্মের জয়জয়াকার। অন্য ধর্ম হলে এতদিনে বুঝে যেতেন।’ সর্বপরি, নচিকেতার এই গান যে সাধারণ মানুষের বিশেষ পছন্দ হয়নি তা বলাই বাহুল্য।

সম্পর্কিত খবর