টাইমলাইনখেলাঅন্যান্য খেলাধুলা

কমনওয়েলথে দাপট ভারতীয় কুস্তিগীরদের! বজরঙ্গ, সাক্ষীর পর সোনা জয় দীপকের, ব্রোঞ্জ দিব্যা ও মোহিতের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের পদক সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ালো ছাব্বিশে। কুস্তি শুরু হওয়া মাত্র পদকের বন্যা বয়ে যেতে শুরু করল। ইতিমধ্যে ভারতের ৬ জন কুস্তিগীরের খেলার পালা এসেছিল এবং প্রত্যেকেই কোনও না কোনও পদক জিতেছেন। কুস্তি থেকে ভারত মোট তিনটি স্বর্ণপদক, দুটি ব্রঞ্চ এবং একটি রৌপ্যপদক এখনো অবধি জিতে নিয়েছে। শুরুটা হয়েছিল অংশু মালিকের রুপো জয়ের মধ্যে দিয়ে। তারপর একে একে প্রত্যাশামতোই বজরঙ্গ পুনিয়া এবং সাক্ষী মালিক ভারতকে সোনা এনে দেন।

সাক্ষী এবং বজরঙ্গ ছিলেন অভিজ্ঞ কুস্তিগীর। তারা অতীতেও কমনওয়েলথ গেমস থেকে পদক জিতে ফিরেছেন। দীপকের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা অন্যরকম ছিল। ভারতের হয়ে প্রথমবারের জন্য কমনওয়েলথ প্রতিযোগিতায় নামা দীপক পুনিয়া নিজের প্রথম প্রচেষ্টাতেই দেশকে একটি স্বর্ণপদক এনে দেন। তিনি শনিবার পুরুষদের ৮৬ কেজি ফ্রি স্টাইল কুস্তির ফাইনালে পাকিস্তানের মুহাম্মদ ইনামকে ৩-০ ফলে পরাজিত করেছেন। তার এই পদক জয়ের পর কমনওয়েলথে ভারতের পদক সংখ্যা ২৪-এ গিয়ে দাঁড়িয়েছিল। কমনওয়েলথ গেমস ২০২২-এর চলতি সংস্করণে এটি ছিল ভারতের নবম স্বর্ণপদক। হরিয়ানার মাটিতে জন্ম নেওয়া দীপক ভারতীয় আর্মির সাথে যুক্ত এবং তিনি নায়েব সুবাদার পদের দায়িত্ব সামলেছেন।

এরপর ২৩ বছর বয়সী তরুণ ভারতীয় মহিলা কুস্তিগীর দিব্যা কাকরান কমনওয়েলথ গেমসে মহিলাদের ফ্রিস্টাইল কুস্তির ৬৮ কেজি ক্যাটাগরিতে দেশের হয়ে পঞ্চম পদক জয় করেছেন। সেমিফাইনালে তিনি নাইজেরিয়ান প্রতিপক্ষের কাছে হেরে গেলেও ব্রোঞ্জ পদকের ম্যাচে তিনি মাত্র ২৬ সেকেন্ডে প্রতিপক্ষ কুস্তিগীর টাইগার লিলি ককার লেমালিয়ারকে হারিয়ে দিয়ে সকলকে অবাক করে দেন। তার পদক জয়ের ফলে চলতি কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের পদক সংখ্যা ২৫ ছুঁয়েছিল।

এরপর ভারতের হয়ে চলতি কমনওয়েলথ গেমসে ২৬ তম পদকটি জেতেন ২২ বছর বয়সী মোহিত গ্রেওয়াল। ফ্রিস্টাইল কুস্তির ১২৫ কেজি ক্যাটাগরিতে তিনি ভারতের হয়ে ব্রোঞ্জ পদক জিতে নিয়েছেন। এই ম্যাচে তিনি জামাইকার প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যারন জনসনকে হারিয়েছেন। মোহিত হরিয়ানার বিখ্যাত ভিওয়ানি জেলার কুস্তিগীর। এই জেলা দেশের অন্যতম শীর্ষ মানের কুস্তিগীরদের জন্মস্থান বলে পরিচিত। সোনা জয়ই তার লক্ষ্য ছিল কিন্তু সেমিফাইনালে তিনি কানাডার ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রতিপক্ষ অমরবীর ধেসির বিরুদ্ধে হেরে যাওয়ায় ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতো হলো।

Related Articles

Back to top button