৩০০ টাকার লটারির টিকিট বদলে দিল ভাগ্য! রাতারাতি কোটিপতি দিনহাটার কুলি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : মা লক্ষ্মী যে কখন কার উপর সন্তুষ্ট হবেন তা কেউ আগে থেকে বলতে পারে না। মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদে ভাগ্যের চাকা ঘুরে যায় অনেক সময়। কখনো সেটা হয় পরিশ্রমে, আবার কখনো লটারিতে। সম্প্রতি লটারির টিকিট কেটে ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেল কোচবিহারের এক কুলির। ৩০০ টাকা দিয়ে এই ব্যক্তি কেটেছিলেন লটারির টিকিট।

লটারি কাটার এক ঘন্টার মধ্যে জানতে পারলেন তিনি সেই লটারিতে জয়লাভ করেছেন কোটি টাকা।গোসানিমারি বড় নাটা বাড়ি এলাকার বাপ্পা আলী পেশায় দিনমজুর। বাপ্পা স্থানীয় একটি লটারি দোকান থেকে ৩০০ টাকা দিয়ে কেনেন লটারির টিকিট। লটারি কাটার এক ঘন্টার মধ্যে তিনি জানতে পারেন তার ভাগ্যে জুটেছে প্রথম পুরস্কার।

আরোও পড়ুন : এখন মোবাইল নম্বর পোর্ট করা হবে আরোও কঠিন! নয়া নিয়ম জারি, কোমড় বেঁধে নামছে TRAI

লটারিতে কোটি টাকা জেতার পর বাপ্পার বক্তব্য, “কুলির কাজ করি আমি। আমার সন্তান আছে। দুই মেয়ে, এক ছেলে। এই টাকা সন্তানদের ভবিষ্যতের জন্য রাখব। সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ আমি লটারির টিকিট কেটেছিলাম। ৮ টার সময় ফল প্রকাশ হলে জানতে পারি আমি প্রথম পুরস্কার জিতেছি। কখনও ভাবতে পারিনি যে লটারিতে এত টাকা জিতব। এটা উপরওয়ালার দেওয়া।”

indiatv5fdd42 lottery

লটারিতে পুরস্কার জেতার খবর পাওয়া মাত্র বাপ্পা এলাকাবাসীদের সাথে পৌঁছে যান থানায়। নিরাপত্তার জন্য বাপ্পা পৌঁছে গিয়েছিলেন দিনহাটা থানায়। বাপ্পার লটারিতে কোটি টাকা জেতার খবর পাওয়ার পর খুশির হাওয়া ছড়িয়েছে গোসানিমারি এলাকা জুড়ে। বলা বাহুল্য, এখন আশেপাশের প্রতিবেশীদের কাছে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে বাপ্পা

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর