এখনই হন সতর্ক! আটা-ময়দা মাখার সময়ে অবশ্যই মেনে চলুন এই ৪ টি উপায়, নাহলেই হতে হবে কাঙাল

বাংলা হান্ট ডেস্ক: জীবনকে সঠিক এবং সুষ্ঠুভাবে চালনা করার লক্ষ্যে অনেকেই ভরসা রাখেন জ্যোতিষশাস্ত্রের (Astrology) ওপর। পাশাপাশি, জ্যোতিষশাস্ত্রে প্রতিটি কাজের ক্ষেত্রে সঠিক পদক্ষেপের বিষয়ে অবতারণা করা হয়েছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, তার মধ্যে দৈনন্দিন কাজকর্মগুলিও যুক্ত রয়েছে। এই প্রতিবেদনে আমরা ঠিক সেই রকমই এক বিষয়ের সঙ্গে উপস্থাপিত করব।

   

মূলত, আটা-ময়দা মাখার ক্ষেত্রেও আপনার সতর্ক থাকা প্রয়োজন। নাহলেই আপনি হতে পারেন বড় সমস্যার সম্মুখীন। রুটি-লুচি বানানোর ক্ষেত্রে আটা-ময়দা মাখানোর কাজটি অত্যন্ত সাধারণ একটি বিষয় হিসেবে বিবেচিত হলেও এই কাজটি করার ক্ষেত্রেও মেনে চলা উচিত কিছু বিশেষ নিয়মাবলী। বাস্তুশাস্ত্রে এই বিষয়টি নিয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

আসলে, বাস্তুশাস্ত্রে আটা, ময়দা মাখার ক্ষেত্রে বেশকিছু নিয়মাবলী রয়েছে। যেগুলো মেনে না চললে ঘটতে পারে ভয়ঙ্কর বিপদ। বাস্তুশাস্ত্র মতে আটা-ময়দা মাখার ওপর নির্ভর করে পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্য, উন্নতি, আয়, ব্যবসা-বাণিজ্যর মতো বিষয়গুলো। হ্যাঁ, প্রথমে বিষয়টি জেনে অবাক হয়ে গেলেও বাস্তুশাস্ত্রে আটা-ময়দা মাখার সময়ে কিছু নিয়ম মেনে চলার কথা বলা হয়েছে। চলুন জেনে নিই সেগুলি:

আরও পড়ুন: এবার বড় চমক Bajaj-এর! অবিশ্বাস্য কম দামে হাজির হল নতুন Pulsar, এটির ফিচার্স জানলে অবাক হবেন

১. আটা ময়দার অপচয় রোধ: বাস্তুশাস্ত্র মতে আটা-ময়দা শস্য থেকে উৎপন্ন হয়। এদিকে, শস্য হল মা লক্ষ্মীর প্রতীক। তাই অযথা আটা-ময়দা নষ্ট করবেন না। আটা-ময়দা অপচয় করলে মা লক্ষ্মী অসন্তুষ্ট হন। যার ফলে ঘরে দারিদ্রতা আসে। এমতাবস্থায়, যতটুকু প্রয়োজন কেবল ততটুকুই আটা-ময়দা ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন: মহাকাশে ক্রমশ দাপট ভারতের! এবার এই গ্রহে মিশনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ISRO, বড়সড় ঘোষণা সোমনাথের

২. আটা-ময়দা মাখার সময়ে আঙ্গুলের ছাপ দিন: আটা-ময়দা মাখার সময় লেচির উপর আঙ্গুলের ছাপ দিন। এর মাধ্যমে পূর্বপুরুষদের স্মরণ করা হয়। এটি করলে সংসারের কল্যাণ এবং হিতসাধন হয়।

Do these 4 things while making the dough

৩. স্নান করে আটা মাখুন: আটা-ময়দাকে মা লক্ষ্মীর প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাই স্নান করে রান্নাঘরে ঢুকে আটা-ময়দা স্পর্শ করুন।

৪. আটা-ময়দার জল গাছের গোড়ায় দিন: আটা-ময়দা মাখা শেষ হলে সেই পাত্রে জল দিয়ে তা গাছের গোড়ায় দিন।