ফিরছে পুরনো ঐতিহ্য! আবারও কলকাতার রাস্তায় দেখা মিলবে ডবল ডেকার বাসের, ইঙ্গিত সরকারের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ৯০’র দশকে কলকাতার রাস্তায় বন্ধ করে দেওয়া হয় ডবল ডেকার বাস। তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকার এই বাস বন্ধ করে দেওয়ার পিছনে যুক্তি হিসেবে দেখিয়েছিল, পুরনো আমলের এই বাস রক্ষণাবেক্ষণের খরচ অনেক বেশি। তবে কলকাতার মানুষদের জন্য হয়ত পুরনো স্মৃতি উসকে ফের রাস্তায় নামতে চলেছে ডবল ডেকার বাস।

নিঃসন্দেহে এই খবর শুনে অনেকেই নস্টালজিক হয়ে পড়বেন। দুদশক বন্ধ থাকার পর কলকাতার রাস্তায় হয়ত ফিরে আসতে চলেছে সেই ডবল ডেকার বাস।কলকাতার রাস্তায় ডবল ডেকার বাসের পথ চলা শুরু আনুমানিক ১৯২৬ সালে। উত্তর কলকাতার শ্যামবাজার এবং দক্ষিণ কলকাতার কালীঘাটকে সংযুক্ত করেছিল এই বাসের প্রথম রুট।

আরোও পড়ুন : ব্যবহার করেন না বাবার দেওয়া নাম-পদবী কোনটাই! কিন্তু কেন? এবার সেই উত্তর দিলেন জিৎ নিজেই

কালক্রমে কলকাতার অন্যতম একটি আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়ায় এই ডবল ডেকার বাস। পরিবহনমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী ইঙ্গিত দিলেন ঐতিহ্যবাহী সেই ডবল ডেকার বাস কলকাতার রাস্তায় ফের চালানোর। গাড়ির পথকর সংক্রান্ত দুটি সংশোধনী বিল সম্প্রতি বিধানসভায় পেশ করেন পরিবহন মন্ত্রী।

আরোও পড়ুন : ফের নক্ষত্র পতন! না ফেরার দেশে চলে গেলেন উত্তম কুমারের বোন স্বর্ণযুগের শিল্পী অসীমা মুখোপাধ্যায়

তারপর পরিবহন মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে অধ্যক্ষ বলেন,  ‘‘একটা সময় ছিল, যখন কলকাতার রাস্তায় দোতলা বাস চলত। মাননীয় পরিবহণমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ, যদি আবার এই দোতলা বাসকে কলকাতার রাস্তায় ফিরিয়ে আনা যায়। কলকাতার রাস্তায় দোতলা বাস চালানোর পরিকল্পনা করলে ভালো হয়।’’ এই বক্তব্যের পর পরিবহন মন্ত্রীকে অবশ্য বিশেষ কিছু বলতে শোনা যায়নি।

Double-decker bus,Kolkata,West Bengal,State Government,কলকাতা,পশ্চিমবঙ্গ,রাজ্য সরকার,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

তারপর কিছুক্ষণ থেমে পরিবহন মন্ত্রী বলেন,  “আমরা অবশ‌্যই চেষ্টা করব, কয়েকটি বাস নামানোর। ফাইল  তৈরি করা হবে।” কলকাতা শহরকে যারা ভালোবাসেন তারা দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছেন দোতলা বাস শহরের রাস্তায় নামানোর। পরিবহন মন্ত্রীর এই আশ্বাসের পর তাই অনেকের মুখেই এখন ফুটেছে হাসি। আদৌ শহরের রাস্তায় দোতলা বাসের সন্ধান মেলে কিনা এখন সেটাই দেখার।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর