ভারতকে অপমানের বদলা! মলদ্বীপ যাওয়ার সমস্ত বিমান বাতিল করল ট্রাভেল সংস্থা ইজমাইট্রিপ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ভারত (India) বিরোধী মন্তব্য ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে (PM Narendra Modi) উপহাসের জের। এবার আরও বিপাকে মালদ্বীপ। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep) সফরকে কেন্দ্র করে চরমে উঠেছে ভারত এবং মালদ্বীপের (Maldives) কূটনৈতিক চাপানউতোর৷ ইতিমধ্যেই ভারত বিরোধী অবস্থানের জন্য দেশকে সমর্থন জানাতে পাকা প্ল্যান হয়ে যাওয়ার পরও বহু ভারতীয় মালদ্বীপ ভ্রমণ বাতিল করে দিয়েছেন৷ আর এবার মলদ্বীপের সমস্ত ফ্লাইট বুকিং বাতিল করল ইজমাইট্রিপ (EaseMyTrip)।

   

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া খুললেই একটাই ট্রেন্ড লক্ষ্য করা যাচ্ছে ‘বয়কট মালদ্বীপ’। এবার এই ট্রেন্ডে গা ভাসাল ইজমাইট্রিপ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে মালদ্বীপের কিছু মন্ত্রীর করা অবমাননাকর মন্তব্যের পরে সেখানের সমস্ত ফ্লাইট বুকিং বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইজমাইট্রিপ। সোশ্যাল মিডিয়ায় এক্স হ্যান্ডেলে নিজেই এই খবর জানিয়েছেন ভারতীয় অনলাইন ট্রাভেল সংস্থা ইজমাইট্রিপের সহ-প্রতিষ্ঠাতা তথা সিইও নিশান্ত পিট্টি। দেশের প্রতি শ্রদ্ধা ও অনুগত্য থেকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থা।

আগে প্রধানমন্ত্রীর লাক্ষাদ্বীপ ভ্রমণের পর সংস্থার আরেক কর্ণধার প্রশান্ত পিট্টি #চলো লক্ষদ্বীপ এর সমর্থনে এক্স হ্যান্ডেলে লিখেছিলেন, “লাক্ষাদ্বীপের জল এবং সৈকতগুলি মালদ্বীপের মতই সুন্দর। আমরা @EaseMyTrip-এ আমাদের প্রধানমন্ত্রী @narendramodi সম্প্রতি পরিদর্শন করা এই আদিম গন্তব্যের প্রচারের জন্য শীঘ্রই দুর্দান্ত কিছু অফার নিয়ে আসব!”

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি লাক্ষাদ্বীপ সফরে গিয়ে সেখানের অপূর্ব প্রকৃতির মাঝে বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রত্যেক ভারতীয়কে জীবনে একবারটি অন্তত এই জায়গাটি ঘুরে দেখার আহ্বানও জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেই দেখেই মাথা ঘুরে যায় মলদ্বীপের। রাগে-হিংসায় মলদ্বীপের কিছু নেতা-মন্ত্রীরা ভারত বিরোধী মন্তব্য করতে শুরু করেন। তবে শুধু মাত্র দেশ বিরোধী মন্তব্য করেই থেমে থাকেননি তারা। প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে বিদ্বেষমূলক কটাক্ষ করেন মলদ্বীপের নেতা-মন্ত্রীরা। বিশেষজ্ঞ মহলের মত, মলদ্বীপের নেতা-মন্ত্রীদের এহেন আচরণের পেছনে চিনের উস্কানি রয়েছে।

আরও পড়ুন: কবে হবে শিক্ষক নিয়োগ? এবার বড় ঘোষণা করে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু

pm modi 17

মোদীর বিরুদ্ধে ‘আপত্তিকর’ মন্তব্য করা মন্ত্রীদের তালিকায় ছিলেন মরিয়াম শিউনা, মালশা শরিফ ও মাহজোম মাজিদ। মলদ্বীপের যুব মন্ত্রকের উপ-মন্ত্রীর পদে রয়েছেন শিউনা। রয়েছেন বললে যদিও ভুল হবে। রবিবার মালদ্বীপ সরকারের তরফে একটি বিবৃতি জারি করে বলা হয়, ‘বিদেশি নেতা এবং উচ্চপদস্থ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সব অবমাননাকর মন্তব্য করা হয়েছে, সেগুলি মালদ্বীপ সরকারের নজরে পড়েছে। ওইসব মত ব্যক্তিগত।’

সে দেশের সরকার বিবৃতি দিয়ে জানায়, ‘য়ারা সরকারি দায়িত্বে থেকে ওই ধরনের আচরণ করেছেন তাদের কর্তব্য থেকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে।’ ভারতের বিরুদ্ধে নেতিবাচক মন্তব্য করায় রবিবারই তিন মন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছে মলদ্বীপ সরকার।