টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

গরু পাচারকাণ্ডে নয়া তথ্য ED-র হাতে! সায়গলের মা-স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দিল্লি তলব

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সাম্প্রতিক সময়ে গরু পাচার মামলায় একের পর এক বিস্ফোরক তথ্য সামনে উঠে আসায় উত্তপ্ত বঙ্গ রাজনীতি। এর মাঝেই এবার এই মামলায় সামনে এলো চাঞ্চল্যকর মোড়! সূত্রের খবর, অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mondal) দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের মা এবং স্ত্রীকে ইতিমধ্যেই দিল্লিতে (Delhi) তলব করেছে ইডি (Enforcement Directorate)।

উল্লেখ্য, গরু পাচার মামলায় সম্প্রতি সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অনুব্রত মণ্ডল। পরবর্তীতে অনুব্রত এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের নামে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি এবং জমির হদিশ পায় তদন্তকারী অফিসাররা। এই মামলায় অতীতেই গ্রেফতার করা হয়েছে অনুব্রত দেহরক্ষী সায়গল হোসেনকে। এক্ষেত্রে একজন সাধারণ দেহরক্ষী হয়ে কিভাবে তাঁর কাছে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি আসতে পারে, সেই উৎস সন্ধান করতেই সায়গলকে গ্রেফতার করে তদন্তকারী সংস্থা আর এবার এই মামলায় তাঁর স্ত্রী এবং মাকে দিল্লিতে তলব করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। তবে অপরদিকে ইডি সমনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে চলেছেন তারা।

সূত্রের খবর, গরু পাচার মামলায় তদন্ত চালিয়ে সায়গল হোসেনের মা এবং স্ত্রীয়ের নামে অসংখ্য সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে তদন্তকারী অফিসাররা। শুধু তাই নয়, একইসঙ্গে এও জানা গিয়েছে যে, সায়গলের গ্রেফতার হওয়ার পরেই সেই সকল সম্পত্তি বিক্রি করার চেষ্টা করে তাঁর স্ত্রী ও মা আর এই অভিযোগ সামনে আসতেই এবার দিল্লিতে তাদের তলব করা হয়েছে বলেই খবর সামনে আসছে। তবে ইডির এই সমনের বিরুদ্ধে সায়গলের পরিবার দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে পারেন বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

প্রসঙ্গত, গরু পাচার মামলায় সর্বপ্রথম গ্রেফতার করা হয় তৃণমূল নেতার দেহরক্ষী সায়গল হোসেনকে। এক্ষেত্রে একজন দেহরক্ষীর কাছ থেকে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি মেলায় হতবাক হয়ে পড়েন তদন্তকারী অফিসাররা। সেই টাকার সঙ্গে গরু পাচার মামলার কোন যোগসূত্র রয়েছে কিনা কিংবা এই বিপুল পরিমাণ টাকার উৎস কি,বতা জানতে ইতিমধ্যেই তৎপর হয়ে উঠেছে গোয়েন্দা সংস্থা।

cow smuggling case,enforcement Directorate,cbi,anubrata mondal,saygal hossain,delhi,birbhum

সিবিআইয়ের দাবি, অনুব্রত মণ্ডলের হয়েই টাকা নেওয়ার কাজ করত তাঁর দেহরক্ষী আর সেই সূত্রেই বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির প্রাপ্তি হয় সায়গলের। উল্লেখ্য, সায়গলের নামে ইতিমধ্যেই ডোমকল, বোলপুর, সিউড়ি এবং বীরভূমের অন্যান্য এলাকায় যথাক্রমে ৩৬, ৭, ৭ এবং ৫ টি জমির প্লটের সন্ধান পেয়েছে সিবিআই। এছাড়াও বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে একাধিক ফ্ল্যাট এবং অন্যান্য সম্পত্তির খোঁজ পাওয়া গিয়েছে; বর্তমান বাজারে যার মূল্য কয়েক কোটি টাকা আর এবার তার স্ত্রী ও মায়ের নামে একাধিক সম্পত্তির হদিশ মেলায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়লো গোটা বাংলায়।

Related Articles