টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ব্যক্তিগত স্বার্থ ভুলে ভালোবেসে দল করুন! তৃণমূল নেতাদের বার্তা অভিষেকের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আজ তৃণমূলের (TMC) বড়ই দুর্দিন। একের পর এক দুর্নীতিতে জড়াচ্ছে শীর্ষ নেতৃত্বের নাম। লড়াইয়ের ময়দান থেকে ইতিমধ্যেই সরে গেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) এবং অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mandal) মতো বিশ্বস্ত সৈনিক। আরও ১৯ জন নেতার উপর নজর আছে সিবিআই-এর (CBI)। এর উপর আর কিছ দিন বাদেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। এই পরিস্থিতিতে জেলা স্তরের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। দিলেন একাধিক বার্তাও।

দলীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, জেলা নেতৃত্বর কাছে অভিষেকের আবেদন, ব্যক্তিস্বার্থ নয়, ভালোবেসে দল করতে হবে। যাঁরা ভালো দল করবেন, দল তাঁদের বেশি করে কাজে লাগাবে। স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষের সামনে আনতে হবে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষকে বোঝাতে হবে। তাঁদের ভুল ভাঙাতে হবে। এরপরই বিরোধীদের তোপ দেগে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক নাকি বলেছেন, বিরোধীরা অপপ্রচার করছে। পাল্টা প্রচারে নামতে হবে।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) গ্রেফতার হওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই কঠোর সিদ্ধান্ত নেয় তৃণমূল। মন্ত্রিত্বের সাথে দলের মহাসচিবের পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। অনুব্রত ক্ষেত্রেও কি সেই রকমই কোনও পদক্ষেপ করবে দল? প্রশ্ন উঠছে একাধিক মহলে।

দলীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, বীরভূমের দায়িত্ব নিয়ে খুব তাড়াতাড়ি কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারে তৃণমূল। তবে শুধু নতুন জেলা সভাপতি নিয়োগ হবে, নাকি পঞ্চায়েতের আগে পুরো সংগঠনটাই ঢেলে সাজাবেন অভিষেক, তা এখনও পরিস্কার নয়। বীরভূমের বেতাজ বাদশা অনুব্রতকে, তাঁরই বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে সিবিআই। এই চিত্র বীরভূমের মানুষ স্বপ্নেও কোনদিন কল্পনা করতে পারেনি। এর প্রভাব পঞ্চায়েত ভোটে পড়বে, তা ভালোই বুঝতে পারছে তৃণমূল।

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব অনুব্রতর জায়গা ভরিয়ে দিতে চাইছে তৃণমূল। অনুব্রতর জায়গায় কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে দুটো নাম। প্রথমজন অনুব্রত অভিজিৎ সিংহ এবং দ্বিতীয়জন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘদিনের সঙ্গী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে অভিজিতের সভাপতি হওয়ার পথে একই সমস্যা। সিবিআই ডাকতে পারে তাকেও। তাই পুরনো কাউকে বাদ দিয়ে নতুন মুখকেও তুলে আনতে পারে তৃণমূল। এমনও সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে।

Related Articles