টাইমলাইনবিশেষআন্তর্জাতিক

তিরিশ বছর ধরে লুকোচুরি, অবশেষে খোঁজ মিলল পোষ্য কচ্ছপের! আনন্দে আত্মহারা মালিক

বাংলাহান্ট ডেস্ক : মা হারালে মা পাওয়া যায় না, তবে কচ্ছপ (Turtle) হারালে? খানিকটা এমনই মাথায় আসবে, যখন আপনি জানবেন, ৩০ বছর পরে হারিয়ে যাওয়া পোষ্য কচ্ছপকে খুঁজে পেল এক পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাজিলের (Brazil) সবথেকে বড় শহর রিও ডি জেনিরোতে (Rio de Janeiro) ।

জানা গিয়েছে, এক পরিবার ১৯৮২ সালে হারিয়ে ফেলে তাদের পোষ্য কচ্ছপ মানুয়েলাকে। ঘরে যখন মেরামতের কাজ চলছিল, সেই সময়ই খোলা দরজা পেয়ে বেরিয়ে যায় কচ্ছপটি, এমনটাই অনুমান করেছিলেন বাড়ির সবাই। প্রায় ৩০ বছর পর গৃহকর্তা লিওনেল মারা গেলে, সন্তানেরা বাড়িতে আসেন। তারপরেই তারা দেখেন চিলকোঠায় জমানো ছিল অনেক টুকরো-টাকরা জিনিসপত্র। সেসব দিয়ে আরোও অনেক কিছুই বানানো হবে বলেই মনে করা হচ্ছিল।

এমন সময়, একটি বাক্সের ভেতর থেকে টেপ রেকর্ডারের পাশ থেকে উঁকি মারে তাদের হারিয়ে যাওয়া পোষ্য মানুয়েলা। শুধু তাই নয়, তারা এটিও আবিস্কার করে যে তাদের পোষ্য টি আদতে পুরুষ। তাই নতুন নামকরণ করা হয় তার। আপাতত ম্যানুয়েল নামেই বিখ্যাত এই গল্পের নায়ক।

অনুমান করা হচ্ছে, কোনরকমে পোকামাকড়ের উপরেই জীবন ধারণ করেছিলেন ম্যানুয়েল। তবে পুরনো বন্ধুকে ফিরে পেয়ে পরিবার আরো একবার আনন্দের মুখ দেখছে। যদিও সাধারন জ্ঞানের জন্য বলে রাখা ভালো, একটি কচ্ছপের আয়ু সাধারণত ২৫৫ বছর এবং জল ও খাবার ছাড়াই দিব্যি তিন বছর কাটিয়ে দিতে পারে এই উভচর। আর এই বিশেষ বৈশিষ্ট্যের জন্যই টিকে ছিল প্রাণটি। তবে, বিজ্ঞান যাই বলুক খুশী পরিবারের সদস্যরা।

Related Articles

Back to top button