চাকরির খবরটাইমলাইন

সরকারি চাকরিতে নিয়োগ নিয়ে বড় ঘোষণা করল ভারতের অর্থমন্ত্রক !

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনা পরিস্থিতিকে কাজে মোদি সরকার (modi government) কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে স্থায়ী নিয়োগ বন্ধ করে করছে – বিরোধীদের ওঠা এই গুরুতর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এবার বিবৃতি দিল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছে, করোনা আবহে কেন্দ্রীয় সরকার নিয়োগ বন্ধ বা কাটছাঁট করেনি। স্টাফ সিলেকশন  কমিশন, ইউপিএসসি, রেল বোর্ডের মাধ্যমে যে ভাবে নিয়োগ করা হত সেভাবেই নিয়োগ চলবে।

শুক্রবার কেন্দ্রের এক নির্দেশিকায় অর্থমন্ত্রক খরচ কমানোর সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিল। বিভিন্ন দিবস উদযাপন সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে খরচ কমানোর নির্দেশ দিয়েছিল অর্থমন্ত্রক। যা নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধে রাহুল গান্ধী বলেন, করোনার অজুহাতে সব কিছুতেই বেসরকারি করার পথে হেঁটেছে। স্থায়ী নিয়োগের পথে হাঁটতে অনাগ্রহী মোদি সরকার।

অন্যদিকে রেল মন্ত্রক জানিয়েছে, ১৫ ডিসেম্বর থেকেই শুরু হবে রেলের পরীক্ষা। পরীক্ষা নেওয়া হবে কম্পিউটারের মাধ্যমে। ১ লাখ ৪০ হাজার শূন্যপদের জন্য আবেদন জমা পড়েছে ২ কোটি ৪২ লাখ। সামনেই বিহার ও পশ্চিমবঙ্গে ভোট এই ভোটে জেতার লক্ষ্যেই চাকরির পরীক্ষা চালু করে নিয়োগের পরীক্ষা নেওয়া শুরু করেছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। রাজনৈতিক মহলের ধারনা এমনটাই।

কিছুদিন আগেই, SSC, RRB নিয়ে জটিলতার মধ্যেই ৩৫ হাজারের বেশি শূন্যপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিল ভারতীয় রেল। রেল সূত্রে জানা যাচ্ছে , ‘নন টেকনিক্যাল পপুলার’ বা NTP পদে হবে নিয়োগ। ২৪ হাজার ৬০৫ টি শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে স্নাতকদের। যারা স্নাতক নয় তাদের জন্য ১০ হাজার ৬০৩ টি শূন্যপদের ঘোষনা করা হয়েছে।

মূল বেতনের সাথেই থাকছে মহার্ঘ্য ভাতা, বাড়িভাড়া ভাতা ও পরিবহণ ভাতা। সেই সঙ্গে মিলবে পেনশন প্রকল্প, চিকিৎসা পরিষেবা-সহ আরও বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা। সাধারণ প্রার্থীদের জন্য বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩৫ বছর। সংরক্ষিতদের জন্য রয়েছে ৩ বছরের ছাড়।

 

 

Related Articles