আমি শুধু শুধু জেল খাটলাম? অভিজিৎ নারদ কাণ্ডকে ‘চক্রান্ত’ তকমা দিতেই আসরে ফিরহাদ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নারদ কাণ্ড একটি চক্রান্ত! বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর একথা বলেছিলেন কলকাতা হাই কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এটিকে স্টিং অপারেশন বলেও মানতে চাননি তিনি। এবার তাঁর এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে নারদ কাণ্ড নিয়ে সরব হলেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)। শুধু শুধু কেন তাঁকে ফাঁসানো হল? প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় নারদ কাণ্ড (Narada Case) প্রসঙ্গে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের (Abhijit Ganguly) বক্তব্যের কথা টেনে আনেন ফিরহাদ। তিনি বলেন, ‘যদি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কথা সত্যি হয়, তাহলে আমার জেল খাটা বেআইনি। এতে প্রমাণিত হল আমায় চক্রান্ত করে ফাঁসানো হয়েছিল’। এখানেই না থেমে তিনি বলেন, অভিজিৎবাবুর যা বোঝানোর তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন। ববির প্রশ্ন, ‘আমায় কেন শুধু শুধু ফাঁসানো হল? আমি তো টাকা হাতে নিইনি। ক্লাবের ছেলেরা টাকা নিয়েছে’।

ফিরহাদ হাকিমের পাশাপাশি নারদ কাণ্ডে নাম জড়িয়েছিল ১৩জন নেতা, মন্ত্রী এবং পুলিশ কর্তার। ম্যাথু স্যামুয়েল নামের এক সাংবাদিক এই ‘স্টিং অপারেশন’ করেছিলেন। অভিযুক্তের তালিকায় নাম ছিল ফিরহাদ হাকিম, সৌগত রায়, শুভেন্দু অধিকারী (সেই সময় তৃণমূলে ছিলেন), শোভন চট্টোপাধ্যায়, অপরূপা পোদ্দার, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, প্রাক্তন প্রয়াত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র, মুকুল রায়, প্রাক্তন সাংসদ সুলতান আহমেদের।

আরও পড়ুনঃ এবার খেলা হবে! অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী হতে পারেন তৃণমূলের দেবাংশু

সম্প্রতি বিজেপিতে (BJP) যোগদানের পর নারদ কাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন করা হয় অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে। এই মামলায় নাম জড়িয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীর। সেই সময় তৃণমূলের (TMC) ছিলেন তিনি, বর্তমানে বিজেপির অংশ। কীভাবে তাঁকে সতীর্থ করছেন? উত্তর দিতে গিয়ে অভিজিৎবাবু বলেন, নারদ কাণ্ড একটি চক্রান্ত।

abhijit ganguly firhad hakim

বিজেপি নেতার কথায়, ‘নারদ একটি চক্রান্ত। অ্যালকেমিস্ট বলে একটি কোম্পানি কাজে লাগিয়ে এই ঘটনা ঘটানো হয়। এটা কোনও স্টিং অপারেশনই না। ব্যবহার করা হয়েছিল ওই ভদ্রলোককে’। এবার নারদ কাণ্ড প্রসঙ্গে অভিজিৎবাবুর এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতেই ফিরহাদের প্রশ্ন, যদি চক্রান্তই হয়, তাহলে তাঁকে শুধু শুধু কেন জেলে পাঠানো হয়েছিল?

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর