তৃণমূলে থাকতেই মোদী অনুপ্রেরণা! যোগা করে কমিয়েছেন ২৪ কেজি, সুকান্তর সাথে কে এই মিতালি?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত ২৫ জুলাই হার্টের সমস্যা জনিত কারণে প্রয়াত হয়েছেন ধূপগুড়ির (Dhupguri) বিজেপি বিধায়ক বিষ্ণুপদ রায় (BJP MLA Bishnupada Roy)। বর্তমানে বিধায়ক শুন্য ধূপগুড়ি। এই অবস্থায় আগামী ৫ সেপ্টেম্বর সেই কেন্দ্রে উপ নির্বাচন (By Election) হচ্ছে। ৮ সেপ্টেম্বর ফল প্রকাশ। উপনির্বাচনকে ঘিরে ক্রমশই চড়ছে রাজনৈতিক পারদ। আর শনিবার ধূপগুড়িতে সভা করে সেই উত্তাপ কিছুটা বাড়িয়েছেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তবে তার পরদিনই বিপরীত চিত্র।

ধূপগুড়ি উপনির্বাচনের আগে গতকাল জলপাইগুড়ির বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি দীপেন প্রামানিক অভিষেকের হাত ধরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন। আর দলবদলের খেলায় এবার তৃণমূলকে পাল্টা দিল বিজেপি। গতবারের তৃণমূল প্রাক্তন বিধায়ক মিতালি রায় (TMC MLA Mitali Roy) তৃণমূল ছেড়ে আজ বিজেপিতে যোগ দিলেন।

ভোটের ঠিক আগের মুহূর্তে জনপ্রিয় তৃণমূল নেত্রীর বিজেপিতে যোগদান বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। ধুপগুড়িতে বিজেপি পার্টি অফিসে রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করছেন মিতালি রায়। ভোটের আগে বঙ্গের এই দুই রাজনৈতিক দল শাসক ও বিরোধীর দলবদলের খেলায় ধূপগুড়ির উপনির্বাচন যেন আরো জমে উঠলো।

এদিন বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে মিতালিদেবী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, “দেখুন তিন বছর ধরে ২১ এর নির্বাচনের পর থেকেই আমি একেবারেই বসা। তৃণমূলের পার্টি অফিসেও যেতাম না। ভাবলাম আমাকে হয়তো দলের আর প্রয়োজন নেই। তৃণমূলে থেকে মানসিক যন্ত্রনা হচ্ছিল। তাই ভাবলাম যেখানে ফ্রি থাকা যায় সেখানেই থাকা ভালো।”

আরও পড়ুন: এবার আর মিথ্যা নয়, সত্যি সত্যি মারা গেলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার ও প্রাক্তন KKR কোচ হিথ স্ট্রিক

তিনি আরও বলেন, “তৃণমূলে থেকে কাজ করতে পারছিলাম না। রাজবংশীকে কেউ যদি পা দিয়ে প্রণাম করে, কেউ বিশ্বাসঘাতক বলে, রাজনীতিতে আমি খেলার পুতুল নয়। আমি লড়াই করা মানুষ। ২১ এর নির্বাচনে হেরে গেছি বলে আমাকে তারা তাদের মতো করে পরিচালনা করবে এটা হতে পারে না।”

এদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar) বলেন, “আজকে ভারতীয় জনতা পার্টির গোটা পরিবার অত্যন্ত আনন্দিত কারণ শ্রীমতি মিতালি রায় উত্তরবঙ্গের প্রমুখ মুখ যারা রাজবংশী সমাজের সমস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা করছে। উনি ও ওনার পরিবার উত্তরবঙ্গের মানুষের অবহেলা, নিপীড়নের বিরুদ্ধে লড়ে চলেছেন। আজ মোদীজির কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে এসেছেন।”

dhuphuri by election

আরও পড়ুন: মেগা পরিবর্তন! এবার শুভেন্দুর বদলে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হচ্ছেন উত্তরবঙ্গের এই বিধায়ক

সুকান্ত মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, “আপনারা শুনলে অবাক হবেন উনি মোদীজির যোগা দিবস নিয়ে এতটাই অনুপ্রাণিত যে উনি গত এক বছরে যোগার দ্বারা ২৪ কেজি ওয়েট কমিয়েছেন। ওনার অনুপ্রেরণা মোদী। এখন উনি ঠিক জায়গায় এসেছেন। আমরা ওনাকে উত্তরবঙ্গ সহ গোটা রাজ্যে কাজে লাগাব। আমরা খুবই আনন্দিত।”

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর