উপচে পড়বে টাকা! নতুন বছর বিরাট উপহার দেবে কেন্দ্র সরকার, সুবিধা পাবেন ১ কোটির বেশি মানুষ

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চলতি বছরে একাধিক ভালো খবর পেয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা (Central Government Workers)। নতুন বছরে ফের কপাল খুলতে চলেছে কেন্দ্রীয় কর্মচারী এবং পেনশনভোগীদের। শোনা যাচ্ছে, শীঘ্রই কেন্দ্রীয় কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের বকেয়া ডিএ-র (Dearness Allowance) টাকা অ্যাকাউন্টে দিতে চলেছে মোদী সরকার। ফলে ফুলেফেঁপে উঠবে কর্মীদের ব্যাংক ব্যালেন্স। যার দ্বারা এক কোটিরও বেশি মানুষ উপকৃত হতে পারেন।

বছর ঘুরলেই লোকসভা নির্বাচন। তার আগেই কেন্দ্রীয় কর্মচারী এবং পেনশনভোগীদের আটকে থাকা ডিএ বকেয়া অর্থ তাদের অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবর মাসেই ৪% ডিএ (DA)বৃদ্ধি পেয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের। আগে ৪২% মহার্ঘ ভাতা পেতেন তারা। বর্তমানে তা বেড়ে হয়েছে ৪৬%। এরই মধ্যে নতুন বছরের শুরুর দিকে ফের একবার কেন্দ্রীয় মহার্ঘ ভাতা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞ মহলের মতে মুদ্রাস্ফীতি সূচকের যা গতি রয়েছে তার ওপর ভিত্তি করে ২০২৪ সালে প্রথম দিকে মহার্ঘ ভাতা ৫০ শতাংশ বা তার বেশি হতে পারে। এবার মহার্ঘ ভাতা ৫০ শতাংশে পৌঁছে গেলে সেই টাকার অঙ্ক কর্মীদের মূল বেতনে যোগ হবে।

আরও পড়ুন: রাম মন্দিরের পাল্টা? স্বর্ণমন্দিরের ধাঁচে এবার ৫০ কিলো খাঁটি সোনায় মুড়ছে কালীঘাট মন্দিরের চূড়া

সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও মহার্ঘ ভাতা বাড়ানোর বিষয়ে কিছু না করলেও ফেব্রুয়ারি মাসে প্রথম সপ্তাহে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত সরকার বছরে দু’বার ডিএ বাড়ায়। যার হার জানুয়ারী এবং জুলাই থেকে প্রযোজ্য হয়ে থাকে। লোকসভা নির্বাচনের আগেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা ফের বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

da salary hike

ওদিকে নতুন বছরে যদি কেন্দ্রীয় কর্মীদের ডিএ বেড়ে ৫০ শতাংশ বা তার বেশি হয় তাহলে তার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ি ভাড়া ভাতা অর্থাৎ এইচআরএও HRA সংশোধন করা হবে। সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ অনুসারে, মহার্ঘ ভাতা ৫০ শতাংশ বা তার বেশি হলে HRA সংশোধন করা হবে। ফলে নয়া বছরে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের বেতন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর