অঞ্চল তৃণমূলের, প্রধান বিজেপি! আজব কাণ্ড রামনগরে, জানুন কেন

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এ যেনো এক আজব কান্ড! বোর্ড গঠন করবে এক দল, কিন্তু পঞ্চায়েত প্রধান (Panchayat Pradhan) হবেন অন্য দলের। সংরক্ষণের গেরো! রামনগর-২ ব্লকের কাদুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন করবে তৃণমূল। কিন্তু প্রধান পদে বসতে চলেছেন বিজেপি (Bharatiya Janata Party) থেকে জয়ী হওয়া প্রার্থী। কারণ প্রধানের পদটি এসসি (Scheduled Caste) সংরক্ষিত। আর একমাত্র এসসি প্রার্থী হিসেবে জিতেছেন বিজেপির রথীকান্ত দাস। ফলে এখনও পর্যন্ত যা খবর, তিনিই প্রধান পদে বসতে চলেছেন।

কাদুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৫টি আসনের মধ্যে ১১টিতে জয়ী হয়েছে তৃণমূল। চারটি আসন পেয়েছে বিজেপি। কাদুয়ার মালঞ্চ ১৩নম্বর আসন থেকে জয়ী হয়েছেন বিজেপির রথীকান্তবাবু। তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নির্দল প্রার্থী সৌমেন বরকে ১৭টি ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন। তবে এখানে তৃণমূল চলে গিয়েছে তৃতীয় স্থানে।

bjp , tmc

বোর্ড তৃণমূলের হলেও প্রধান হতে চলেছে বিজেপি। যদিও এই সমীকরণ নিয়ে তৃণমূলের নীচুস্তরের নেতাদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। তাঁদের বক্তব্য, প্রধান পদে যদি বিজেপির কেউ বসেন, তাহলে তা দলের পক্ষে মোটেই সুখকর হবে না। এসসি প্রার্থী হিসেবে অন্য আসনে কাউকে বিকল্প হিসেবে রাখলে এই পরিস্থিতি তৈরি হতো না এমনটাই মনে করেছেন বিদায়ী প্রধান। তিনি অনায়াসে দলের পক্ষ থেকে প্রধান পদে বসতে পারতেন।

তবে কাদুয়া পঞ্চায়েতে শেষ পর্যন্ত কী সমীকরণ দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর রয়েছে এলাকার বাসিন্দা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক মহল-সকলেরই। তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন বিদায়ী প্রধান বীণাপানি দাস। যদিও তিনি জানান যা বাস্তব তাই তো মেনে নিতে হবে।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর