নিয়োগ দুর্নীতি অতীত! এবার রাজ্যে নতুন কেলেঙ্কারি, মমতার দফতরে বিরাট বেনিয়মের অভিযোগ শুভেন্দুর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে একের পর এক কেলেঙ্কারির অভিযোগ! নিয়োগ দুর্নীতি, পুর নিয়োগ দুর্নীতি, রেশন দুর্নীতি নিয়ে বর্তমানে শোরগোল। এরই মধ্যে হেলথ্ রিকরুটমেন্ট বোর্ডের বিরুদ্ধে দুর্নীতির (Health Recruitment Board) অভিযোগ তুলে সরব হলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। শুভেন্দুর অভিযোগ, ২০১১ সাল থেকে নিয়োগে অনিয়ম চলে আসছে।

এক্স হ্যান্ডেলে বিস্ফোরক শুভেন্দু

   

এই নিয়ে শুক্রবার নিজের এক্স হ্যান্ডেলে শুভেন্দু লেখেন, ‘২০১১ সাল থেকেই রাজ্যের হেলথ্ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের নিয়োগ পদ্ধতিতে গুরুতর অনিয়ম হয়েছে। কিছু প্রভাবশালী লোকের ইচ্ছে মতো বদলি করা হয়েছে।” শুভেন্দুর আরও দাবি এই নিয়ে হেলথ্ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের ভিতর থেকেই নির্ভরযোগ্য সূত্রে তিনি এই খবর পেয়েছেন। এই বিষয়ে তথ্য পেতে তিনি RTI করেছেন বলেও এক্স হ্যান্ডেলে লিখেছেন।

আরও পড়ুন: নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগে এবার দুই BJP বিধায়ককে তলব! তালিকায় কারা? শোরগোল রাজ্যে

স্বাস্থ্য দফতর নিয়েও তুলেছিলেন দুর্নীতির অভিযোগ

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই করোনাকালে স্বাস্থ্য দফতরে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন শুভেন্দু। করোনাকালে কোভিড সরঞ্জাম কেনায় বিপুল আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ইডি, আয়কর দফতর এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে চিঠি দেন নন্দীগ্রাম বিধায়ক। সেই ছবিই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন শুভেন্দু।

চিঠিতে শুভেন্দুর অভিযোগ ছিল, ‘কোভিড অতিমারীর সময় বাংলায় পিপিই কিট এবং অন্যান্য চিকিত্‍সা সরঞ্জাম কেনার জন্য রাজ্যকে বিপুল আর্থিক সাহায্য করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। দুর্নীতিগ্রস্ত রাজ্য সরকার সেই তহবিল থেকে কোটি কোটি টাকা চুরি করেছে।’ সেই অভিযোগের পর এবার হেলথ্ রিকরুটমেন্ট বোর্ডের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ শুভেন্দুর।

mamata suvendu 4

এদিকে হেলথ্ রিক্রুটমেন্ট বোর্ড চেয়ারম্য়ান সুদীপ্ত রায় এই বিষয়ে জানান,” ২০১১ সালের বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না। আমি ২০২২ সালের এপ্রিল মাসে জয়েন করেছি। সেই সময় থেকে প্রত্যেকটা রিকরুটমেন্ট স্বচ্ছতার সঙ্গে হয়েছে। প্রত্যেক প্রার্থী কে কত নম্বর পেয়েছেন জিসপ্লে করে ওয়েবসাইটে দিয়ে দিয়েছি। তাই আরটিআইতে কোনও অসুবিধা নেই।”