ইংরেজিতে লেটার! প্রকাশ্যে এল ‘দিদির উপর ভরসা রাখা’ মায়েদের সন্তানদের মাধ্যমিকের ফল

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভরসা রেখেছিলেন দিদির ওপর। ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে মায়েদের জবাব ছিল, ‘দিদি আছে, মেয়েরা পাশ করে যাবে’। গত ৩ মার্চ সেই ভিডিও সামনে আসার পরেই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের মায়েদের এই মন্তব্যকে ঘিরে রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এখন মাধ্যমিক পরীক্ষার (Madhyamik Pariksha) ফল প্রকাশ হতেই সেই পড়ুয়াদের নিয়ে আমজনতার আগ্রহ বাড়ল।

এদিকে, মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর ফের ভাইরাল তারা। তাই এখন ক্যামেরা দেখলেই রীতিমতো ‘আতঙ্কিত’ হয়ে পড়ছেন ট্রোলড্ হওয়া সেই দুই অভিভাবক। যখন যেখানেই বেরোচ্ছেন সেখানেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছেন তারা। এমনকি, “দিদি আছে সবাই পাস” , এই মন্তব্য ধরে দেদার মিম, পোস্ট শেয়ার হচ্ছে। তাই, ফল প্রকাশের পর সন্তানদের কথা মাথায় রেখে বাধ্য হয়েই ক্যামেরা থেকে দূরে সরে রয়েছেন এই দুই মহিলা।

জানা গিয়েছে, দত্তপুকুর নিবাধুই বালিকা বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের অভিভাবক ছিলেন তারা। মাধ্যমিকে বেশ ভালোই ফল করেছে এই দুই বাড়ির মেয়েরা। ওই দুই ভাইরাল অভিভাবকের নাম পিংকি চক্রবর্তী এবং কাকলি মণ্ডল। তাদের সন্তান মাহি চক্রবর্তী এবং অনামিকা মণ্ডল চলতি বছর মাধ্যমিক দিয়েছিল। মাহি আর অনামিকার রেজাল্ট নিয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত পরিবারের বাকী সদস্যরা।

Madhyamik Pariksha

সূত্রের খবর, পরীক্ষার্থীদের মধ্যে অনামিকা মণ্ডল পেয়েছে ৩৯০ এবং মাহি চক্রবর্তী পেয়েছে ৩১০। শুধু তাই নয়, ইংরেজিতে লেটার পেয়েছে অনামিকা। এদিকে এই ভাইরাল ভিডিয়োটিকে বিশেষ পাত্তা দিতে নারাজ নিবাধুই বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা স্বাতী মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “সেই মুহূর্তে হয়তো কেউ তাৎক্ষণিক আনন্দ ব্যক্ত করতে গিয়ে বলে ফেলেছেন। এটাকে এত গুরুত্ব দিচ্ছি না।”

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর