স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে হাওড়া ব্রিজের! দায়িত্ব দেওয়া হল বেসরকারি সংস্থা রাইটসকে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কলকাতার মুকুটে হাওড়া ব্রিজ এক উজ্জ্বলময় পালক। ব্রিটিশ আমলে তৈরি এই সেতু কলকাতা ও হাওড়ার ল্যান্ডমার্ক হয়ে রয়েছে। প্রতিদিন হাজার হাজার গাড়ি এই ব্রিজের উপর দিয়ে চলাচল করে। কলকাতা ও হাওড়াকে সংযুক্ত করে এই হাওড়া ব্রিজ বা রবীন্দ্র সেতু। দুই শহরের পরিবহণ মানচিত্রে এই সেতুর গুরুত্ব অপরিসীম।

   

যত সময় এগিয়েছে ততই চাপ বেড়েছে হাওড়া ব্রিজের উপর। সময়ের সাথে বেড়েছে গাড়ির সংখ্যা। ব্রিটিশ আমলে তৈরি এই সেতুর এবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে উদ্যোগী হল বন্দর কর্তৃপক্ষ। বেসরকারি সংস্থা রাইটসকে দেওয়া হয়েছে হাওড়া ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার দায়িত্ব। হাওড়া ব্রিজ দাঁড়িয়ে আছে লোহার কাঠামো এবং স্তম্ভের উপর।

আরোও পড়ুন : মনের মত হয়নি চুল কাটা! নাপিতকে শায়েস্তা করতে থানায় ছুটলেন যুবক, ঘটনা এই বাংলারই

এই স্বাস্থ্য পরীক্ষার মাধ্যমে খতিয়ে দেখা হবে লোহার কাঠামো ও স্তম্ভের অবস্থা। পরীক্ষা করে দেখা হবে লোহার কাঠামোর প্রতিটি কোণা এবং অন্যান্য অংশ। প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছিল হাওড়া ব্রিজের। সেই সময়ে এই ব্রিজে বিশেষ কোনও সমস্যা পাওয়া যায়নি। তবে পরবর্তী বছরগুলিতে যানবাহনের সংখ্যা ভালোই বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই কলকাতা বন্দর কর্তৃপক্ষ হাওড়া ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

howrah bridge

কলকাতা ও হাওড়ার ক্ষেত্রে হাওড়া ব্রিজ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একটি পরিসংখ্যান বলছে, প্রতিদিন ১,৫০,০০০ জন পথচারী হাওড়া ব্রিজের উপর দিয়ে যাতায়াত করেন। প্রতিদিন প্রায় এক লক্ষ গাড়ির চাপ সামলায় শতাব্দি প্রাচীন এই সেতু। কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের একটি তথ্য অনুযায়ী, সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে সবথেকে বেশি গাড়ি যাতায়াত করে হাওড়া ব্রিজ দিয়ে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর