দারুণ সুখবর! এই রুটে স্পেশ্যাল বন্দে ভারতের ঘোষণা রেলের, বাড়ল ৬৭৭৩ টি সিট, রইল সময়সূচী

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বাংলা-পুরীর (Puri) দূরত্ব এখন আরও কম। পকেট সাথ দিলে এবার পুরী ভ্রমণ হবে আরও আরামদায়ক। কারণ শীঘ্রই চালু হতে চলেছে হাওড়া-পুরী স্পেশাল বন্দে ভারত (Howrah-Puri Special Vande Bharat)। তাই পুরী যাওয়ার ইচ্ছা থাকলে আজই শুরু করে দিন প্যাকিং। কারণ প্রথম ট্রেনটি ছাড়বে আগামি ১১ জানুয়ারি, এবং তারপরের ট্রেনটি রয়েছে তার এক সপ্তাহ পর অর্থাৎ ১৮ তারিখ। তাহলে চলুন দেখে নিই কখন কোথা থেকে ছাড়বে এই স্পেশাল ট্রেন।

রেল সূত্রে খবর, এবার থেকে প্রতি বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টা বেজে ১০ মিনিট নাগাদ ট্রেনটি ছাড়বে। ট্রেনটি পুরী পৌছাবে দুপুর ১২ টা নাগাদ। এরপর ঐদিনই পুরী থেকে হাওড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেবে বন্দে ভারত (Vande Bharat) ট্রেনটি। এইদিন এই প্রসঙ্গে একটি অফিশিয়াল বিবৃতিতে পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক কৌশিক মিত্র জানিয়েছেন, এই তিনটি ট্রেন মূলত স্পেশাল ট্রেন হিসেবে চালানো হচ্ছে।

তিনি এইদিন আরও বলেন, ‘আমরা জানি পশ্চিমবঙ্গের মানুষ, কলকাতার মানুষ পুরীতে বেড়াতে যেতে চান। সেকারণে ছুটির বিষয়টি মাথায় রেখে হাওড়া-পুরী স্পেশাল বন্দে ভারত ছাড়া হবে। ৯ জানুয়ারি থেকে রিজার্ভেশন চালু হয়ে যাচ্ছে। আশা করছি এই সুযোগটা ছাড়বেন না। পুরী ঘুরে আসুন বন্দে ভারতে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই স্পেশাল ট্রেনটি খড়্গপুর, বালাসোর, ভদ্রক, জাজপুর, কেওনঝাড় রোড, খুরদা রোড, ভুবনেশ্বর স্টেশনে থামবে। প্রায় ৬৭৬৮টি অতিরিক্ত আসন তৈরি হয়েছে এই স্পেশাল ট্রেনের জেরে। সেই সাথে খবর, এই ট্রেনে ১২ টি এসি চেয়ার কার ও ২টি এক্সিকিউটিভ চেয়ার কার থাকবে। আগামি কাল থেকেই শুরু হবে রিজার্ভেশন। তাই দেরি না করে ঝটপট তৈরি হয়ে যান।

আসলে পুরী আর বাঙালির সম্পর্ক আজকের নয়। বিশেষ করে মধ্যবিত্ত বাঙালির কাছে পুরী আর দীঘা হল স্বর্গ। অল্প খরচে ঘুরতে যাওয়ার জন্য এর চেয়ে ভালো জায়গা আর কিছু হয়না। আর পুরীর আরও একটা বিশেষত্ব হল, এখানে একইসাথে সমুদ্র দর্শনও হয় এবং তীর্থ করাও হয়। তাই যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ব রেল।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর