টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

ব্রিটেনে থেকেও দেশের যন্ত্রণায় কাতর ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসকরা, পাঠাচ্ছে চিকিৎসা সরঞ্জাম

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ দেশে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনার (covid-19) দ্বিতীয় ঢেউ। এই পরিস্থিতিতে পাশে দাঁড়িয়েছে প্রতিবেশি দেশ থেকে শুরু করে বিভিন্ন বন্ধু দেশও। এবার ভারতের এই করোনা যুদ্ধে অংশ নিল ইংল্যান্ড স্থিত ভারতীয় বংশোদ্ভূতরা। দেশে আসছে ইংল্যান্ডে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় ব্যবহৃত নন- ইনভেসিভ ভেন্টিলেটর।

জানা গিয়েছে, ইংল্যান্ডে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলাকালীন এই ধরণের ভেন্টিলেটর ব্যবহার করা হয়েছিল। ভারতে এই নন- ইনভেসিভ ভেন্টিলেটর ১০০ টি আনার বিষয়েও জানা গিয়েছে। যার ফলে, করোনা রোগীদের অবস্থার অবন্নতি হলে, তাঁদের অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া যাবে।

‘হোপ টু স্লিপ’ চ্যারিটি ফাউণ্ডেশন এবং ‘ব্যাপিও ইউকে’ ফাউন্ডেশন একত্রিত হয়ে ভারতের এক বৃহৎ অংশের মানুষকে ঔষধ পরিষেবা দিচ্ছে। এই ‘হোপ টু স্লিপ’ চ্যারিটি ফাউণ্ডেশনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন ইংল্যান্ড স্থিত ভারতীয় বংশোদ্ভূতরা এবং অন্যদিকে ‘ব্যাপিও ইউকে’ ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন ৭ হাজারেরও বেশি চিকিৎসক। তাঁদের সকলেই এই সংকটের দিনে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে।

‘হোপ টু স্লিপ’ চ্যারিটি ফাউণ্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ক্যাথ হোপ জানিয়েছেন, ‘১০০০ অক্সিজেন, ২০ হাজার অক্সিমিটার, এয়ার ফিল্টারসহ আরও অনেক জিনিস পাঠানো হবে ভারতে। ভারতের পরিস্থিতির কথা শুনে আমরা খুবই আশা হত। সেই কারণেই আমরা ভারতের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অর্থ একত্রিত করেছি’।

অন্যদিকে ‘ব্যাপিও ইউকে’ ফাউন্ডেশনের ডিরেক্টর অরবিন্দ শাহের কথায়, ‘আমরা ভোর ৪ টে থেকেই উঠে টেলি কনসাল্টেশন করে ওখানকার চিকিৎসকদের সাহায্য করছি। মানুষের পাশে আছি। দেশ থেকে এইভাবে দূরে থাকায়, আমরা যন্ত্রণায় আছি’।

Related Articles

Back to top button