নো ট্রেন মিস! এবার নির্ভুল সব তথ্য পাবেন শিয়ালদায়, নয়া প্রযুক্তি রেলের

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : একটা সময়ে স্টেশনে ঢোকার পর কোন ট্রেন কখন আসছে বা ছেড়ে যাচ্ছে তা নিয়ে রীতিমত যাত্রীদের মধ্যে তৈরি হত উদ্বেগ। কখনো কখনো সহ যাত্রীদের জিজ্ঞাসা করতে হত নির্দিষ্ট ট্রেনের ব্যাপারে। কিন্তু যাত্রীদের এই সমস্যার মুখোমুখি এখন আর হতে হয় না। রেল কর্তৃপক্ষ শিয়ালদায় চালু করেছে ইন্টিগ্রেটেড প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম।

স্টেশনের প্রবেশ-প্রস্থানের স্থানে এই ধরনের ইন্টিগ্রেটেড প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম চালু করা হয়েছে। এরফলে নির্ভুলভাবে স্টেশনে আগত যাত্রীরা পেয়ে যাচ্ছেন ট্রেনের বিস্তারিত তথ্য। কালো বোর্ডের ওপর নানা রঙের আলোয় ফুটে উঠছে ট্রেনের নাম, নম্বর, প্ল্যাটফর্মের সংখ্যা থেকে শুরু করে ট্রেন ছাড়ার সময়। এই যাবতীয় তথ্য অনেক দূর থেকেই যাত্রীরা দেখতে পাচ্ছেন।

আরোও পড়ুন : TRP তলানিতে! রাতারাতি বন্ধ হচ্ছে স্টার জলসার এই জনপ্রিয় সিরিয়াল, আসছে নয়া ধামাকা

তার সাথে চলছে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঘোষণা। এই বাড়তি ব্যবস্থায় উপকৃত হচ্ছেন লক্ষ লক্ষ যাত্রী। প্রযুক্তি নির্ভর এই ব্যবস্থা চালু হওয়ার পর কাউকে ট্রেনের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করতে হচ্ছে না। যাত্রীরা বোর্ডে দেখতে পাচ্ছেন ট্রেনের বিস্তারিত তথ্য। প্রযুক্তি নির্ভর এই ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে শিয়ালদা শাখার সিগন্যালিং এবং টেলি–কমিউনিকেশন বিভাগের উদ্যোগে।

আরোও পড়ুন : আদানি-আম্বানিও তুচ্ছ, ভারতের সবচেয়ে দামি গাড়ির মালিক এই ব্যক্তি, জানুন পরিচয়

আগে ট্রেন আসা ও ছাড়ার সময় ম্যানুয়ালি ঘোষণা করা হত। এর ফলে অনেক সময় সমস্যা হত যাত্রীদের মধ্যে। স্টেশনের শোরগোলের মধ্যে অনেকেই মাইকিং শুনতে পেতেন না। আবার অনেক সময় ঘোষণায় থেকে যেত ভুল ত্রুটি। ফলে সমস্যায় পড়তেন যাত্রীরা। এখন বোর্ডের উপর জ্বলজ্বল করে উঠছে ট্রেনের যাবতীয় ইনফরমেশন।

ট্রেন নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার সফটওয়্যার থেকে সরাসরি ইন্টিগ্রেটেড প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম ব্যবস্থায় এখন চলে আসছে কোন ট্রেন ঢুকছে, কোনটি ছেড়ে যাচ্ছে, এই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য। এরফলে স্টেশনে ঢোকা মাত্রই যাত্রীরা জেনে যাচ্ছেন কত নম্বর প্লাটফর্মে কোন ট্রেন আসছে বা ছাড়ছে। রেল সূত্রে খবর, নতুন এই সিস্টেমে আলাদা বোর্ড থেকে যাত্রীরা পেয়ে যাচ্ছেন নির্দিষ্ট কামরার হদিশও।

A lot of canceled trains in Sealdah division

এক রেলের অধিকর্তা জানাচ্ছেন, “স্টেশনে প্রবেশ করা মাত্রই যাত্রী যদি তার ট্রেন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যান তাহলে অনেকটা নিশ্চিন্ত বোধ করেন। আমরা চেষ্টা করছি ইন্টিগ্রেটেড প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেমকে আরো উন্নত করার। ধীরে ধীরে শিয়ালদা শাখার অন্যান্য স্টেশনেও এই ব্যবস্থা চালু করা হবে।”

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর