‘ইন্দিরা গান্ধী চাঁদে গিয়েছিলেন’, রাকেশ রোশনের পর প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে চন্দ্রাভিযানে পাঠিয়ে ট্রোলড মমতা

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ল্যান্ডিংটা দেখাই গেল না। অন্য একজনের মুখ ভেসে উঠল। চন্দ্রযান-৩-এর ল্যান্ডিংয়ের বিষয়ে এমনই বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।সোমবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেন দলনেত্রী। সেখানেই নিজের এই ‘বিরক্তি’ প্রকাশ করেন তিনি। এরই সঙ্গে বেঁফাসে বলে ফেলেন আর একটি কথা।

মুখ ফস্কে ভুল বলে ফেলে আরও একবার সোশ্যাল মিডিয়ায় চূড়ান্ত ট্রোল হলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভায় বক্তৃতা দিচ্ছিলেন মমতা। সেখানে বেঁফাসে বলে বসেন, ‘ইন্দিরা খখন চাঁদে গিয়েছিলেন’। আগের দিন রাকের শর্মাকে ভুল করে রাকেশ রোশন বলেছিলেন। আর এদিন ফের সেই নাম বিভ্রাট।

mamata

এরপরেই তিনি বলেন, ‘ইসরোর সাফল্যে জন্য গর্বের সঙ্গে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’ বাংলার অনেক কৃতী বিজ্ঞানী-ইঞ্জিনিয়ার চন্দ্রযান-৩-এর সঙ্গে জড়িত। তাঁদের তিনি অভিনন্দন জানান। একইসঙ্গে তিনি জানান, রাজপথে, ইসরোয় কর্মরত বাংলার বিজ্ঞানী-প্রযুক্তিবিদদের নিয়ে বড় করে অভিনন্দন অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

তবে এরপরেই তিনি অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, ‘আমার একটি জিনিস খুব অদ্ভুত লাগল, ল্যান্ডিংটা লোকে দেখতে চায়। ল্যান্ডিংটা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অন্য একজনের ছবি ভেসে উঠল। তাঁর ভাষণ শুরু হয়ে গেল। ল্যান্ডিংটা দেখাই গেল না। বসেই ছিল রেডি হয়ে সব।’

বিরক্তির সুরে তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজে টিভির সামনে বসেছিলাম, ল্যান্ডিংটা কী করে করছে, স্মুদ ল্যান্ডিং, না টাফ ল্যান্ডিং না রাফ ল্যান্ডিং, না স্ট্রং ল্যান্ডিং দেখার জন্য। পেলাম না দেখতে। ফলে বন্ধ করে দিলাম টিভি।’

আরও পড়ুন : ফের ED তলব করতে পারে মার্লিন গ্রুপের চেয়ারম্যান সুশীল মোহতাকে? জোর শোরগোল রাজ্য জুড়ে

এরপর মমতা বলেন, ‘এর আগেও আপনারা জানেন, ইন্দিরা গান্ধী চাঁদে মানুষ পাঠিয়েছিল। সালটা ৬৯-৭০ এরকম সময় হবে। আমি তখন খুব ছোট ছিলাম। তখন রোজ খবরের কাগজ পড়তাম। রাকেশ পৌঁছানোর পর তাঁকে সারে যাহা সে আচ্ছা বলেছিলেন। খবরের কাগজে পড়েছিলাম।’

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর