BCCI-র দু চোখের বিষ! কেন শোনেননি বিন্নি-শাহদের কথা? এতদিন পর মুখ খুললেন অবাধ্য ঈশান কিশান

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : গতকাল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স (Mumbai Indians) এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর (Royal Challengers Bangalore) ম্যাচে জবরদস্ত লড়াই দেখা গিয়েছে। ম্যাচের শুরুতেই আউট হয়ে যান বিরাট কোহলি (Virat Kohli)। তার উইকেট নিয়ে নেন বুমরাহ। এরপর অবশ্য ফাফ ডু প্লেসিস, রজত পতিদার এবং দীনেশ কার্তিকের সৌজন্যে 196 এর অংকে পৌঁছে যায় বেঙ্গালুরু। কিন্তু এতকিছুর পরেও ম্যাচ জিততে পারেনি তারা, কারণ শুরু থেকেই চালিয়ে খেলতে শুরু করে মুম্বাই।

মুম্বাইয়ের হয়ে শুরুতেই চালিয়ে খেলেন রোহিত শর্মা। তিনি আউট হয়ে গেলে দায়িত্ব নেন উল্টোদিকে থাকা ইশান কিশান (Ishan Kishan)। 69 রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। আর তারফলে ম্যাচ যেমন জিতে নিল মুম্বাই তেমনি বোর্ডকেও যোগ্য জবাব দিলেন ইশান। তবে শুধু ব্যাটে জবাব দিয়েই ক্ষান্ত দেননি তিনি, বিষয়টি নিয়ে মুখও খুলেছেন তিনি। এছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট না খেলার আসল কারণ সম্পর্কেও মুখ খুলেছেন তিনি।

আসলে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে যখন টেস্ট সিরিজ চলছিল ঠিক সেইসময় দল ছেড়ে বেরিয়ে যান ইশান। কারণ হিসেবে জানান তার মানসিক সমস্যার কথা। কিন্তু সেই যে একবার দল ছেড়ে বেরিয়েছেন তারপর থেকে আর ডাক পাননি তিনি। বোর্ড অবশ্য তাকে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে বলে। তবে সেকথা শোনেননি ইশান কিশন। উল্টে রঞ্জি না খেলে তিনি মুম্বই শিবিরে যোগ দেন প্র্যাকটিসের জন্য।

আরও পড়ুন : সরে গেলে পথের কাঁটা! KKR-র জন্য চরম সুসংবাদ, আগামী ম্যাচে জয় নিশ্চিত শ্রেয়সদের

বিষয়টি সম্পর্কে ইশান বলেন, “আমি অনুশীলন করছিলাম। আমি যখন খেলছিলাম না, তখন অনেকে অনেক কথা বলে। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে নানান কথা লেখালেখি চলছিল। কিন্তু এটাও তো বুঝতে হবে যে, সমস্ত কিছু ক্রিকেটারের হাতে থাকে না।” এদিকে ইশানকে দল থেকে তো বহু আগেই বাদ দেওয়া হয়েছে, সেইসাথে বার্ষিক চুক্তি থেকেও তাকে বের করে দিয়েছে বোর্ড।

আরও পড়ুন : ‘ভাতার কাছে ইজ্জত বেচবেন না’, সন্দেশখালির প্রসঙ্গ উঠতেই চোখে জল শুভেন্দুর

delhi (3)

আর এসবের ইশান বলেন, “সময়কে ঠিক মতো ব্যবহার করতে হবে। আমি আগে যা ভাবতাম সেটা এখন অনেকখানি বদলেছে। এর আগে প্রথম দু’ওভারে প্রায় সমস্ত বলেই মারার চেষ্টা করতাম। এমনকি ভাল বল হলেও মারতে যেতাম। কিন্তু বর্তমানে বুঝতে শিখেছি যে, 20 ওভারের খেলাও অনেকটাই বড়। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট বেশ সময় নিয়ে খেলা যায়। তাই এখন শুরুর দিকে ম্যাচ হেরে গেলেও ভেঙে পড়িনি। বিশ্রাম নিয়ে কথা বলেছি। বোঝার চেষ্টা করেছি রান না পেলে বাকিরা কী ভাবছে।”

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর