মহাকাশে নতুন জায়গা তৈরি করতে প্রস্তুত ISRO! নয়া ঘোষণা চেয়ারম্যান এস সোমনাথের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভারতের মহাকাশ সংস্থা বা ইসরো স্পর্শ করছে নতুন নতুন মাইলফলক। ইসরোর হাত ধরে মহাকাশ বিজ্ঞানের নতুন দিগন্ত খুলে যাচ্ছে ভারতের। ইসরোর চন্দ্রযান ৩ অভিযান নতুন করে আশা জুগিয়েছে ভারতের মহাকাশ বিজ্ঞানে। একের পর এক মহাকাশ অভিযানে সাফল্যের পর আত্মবিশ্বাসের নতুন উচ্চতায় পৌঁছে গেছে ভারতের মহাকাশ সংস্থা।

চন্দ্রযান ৩ এর সাফল্যের পর ইসরো নতুন নতুন অভিযানের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এই আবহে ইসরো জানিয়েছে, অদূর ভবিষ্যতে মহাকাশে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন তৈরি করবে ভারত। ইসরো ২০৩০ সালের মধ্যে আমেরিকা, রাশিয়া ও অন্যান্য দেশের সাথে লীগে যুক্ত হয় তৈরি করবে নিজস্ব মহাকাশ স্টেশন। পৃথিবীর উপরে ৪০০ কিলোমিটার কক্ষপথে নির্মিত হবে এই স্পেস স্টেশন।

আরোও পড়ুন : ১৫ অক্টোবরেই ছুটবে বাংলার প্রথম AC লোকাল! চড়তে গেলে খরচা কত? দেখুন রেলের হিসেব

একটি সাক্ষাৎকারে ইসরো চেয়ারম্য়ান এস সোমনাথ জানান, ভারতীয় মহাকাশ সংস্থার একাধিক পরিকল্পনা রয়েছে ভবিষ্যতে। এই পরিকল্পনাগুলোর মধ্যে অন্যতম নিজস্ব স্পেস স্টেশন তৈরি করা এবং আরো বেশি সময়ের জন্য মহাকাশচারীদের সেখানে রাখার ব্যবস্থা করা। জানা যাচ্ছে, ইসরো স্পেস স্টেশন তৈরির মাধ্যমে মহাকাশে ২০ দিন মহাকাশচারীদের রাখতে চায়।

ISRO chief s Somnath made a big comment

ইসরো প্রধান আরো জানিয়েছেন, “চন্দ্রযান সাফল্যের পর আমরা নতুনভাবে আত্মবিশ্বাস পেয়েছি। আমাদের পরিধি আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি মহাকাশে স্পেস স্টেশন তৈরি করে ভারতের অর্থনীতিকে মজবুত করতে। এই স্পেস স্টেশন রোবটিক অপারেশনের মাধ্যমে চালু করতে হবে। ভারতের পক্ষ থেকে মানুষ পাঠানো হবে গগনযান মিশনে। ভারত পরিকল্পনা করছে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে স্পেস স্টেশন তৈরি করার।”

 

 

 

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর