কমিউনিস্টে মুগ্ধ, পার্টির সদস‍্য হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ জ‍্যাকি চ‍্যানের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গত বছর চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াই গোটা বিশ্বে আলোচনার স্তরে উঠে এসেছিল। প‍্যাংগং লেকে দুই দেশের সেনার লড়াই ও চিনের কূটনীতি লক্ষ‍্য করে বিশ্বের তাবড় দেশ সমালোচনা করেছিল চিনের। থমথমে পরিস্থিতির মাঝে বছর ঘুরতেই বড়সড় চমক মিলল চিনা রাজনীতিতে। কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগদানের ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন হলিউড অভিনেতা তথা প্রখ‍্যাত মার্শাল আর্টিস্ট জ‍্যাকি চ‍্যান (jacky chan)।

   

সবে সবে শতবর্ষে পা রেখেছে চিনা কমিউনিস্ট পার্টি। দেশজুড়ে চলছে উৎসবের। এই উৎসবের আবহেই পার্টিতে যোগদানের ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন জ‍্যাকি। সিপিসির একটি বিশেষ শাখা রয়েছে যেখানে বিভিন্ন ক্ষেত্রের পেশাদার মানুষেরা রয়েছেন। সেই শাখার একটি মিটিংয়ে জ‍্যাকি চ‍্যান ঘোষনা করেন তিনি সিপিসির সদস‍্যপদ পেতে আগ্রহী।


জ‍্যাকি যে কমিউনিস্ট পার্টিকে নেকনজরেই দেখেন তার প্রমাণ মিলেছে আগেও। ২০১৯ সালে চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছিল তরুণরা। তাদের বিক্ষোভকে প্রতিহত করতে কড়া পদক্ষেপ নিয়েছিল বেজিং‌। সকলেই বিষয়টা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেও তখন বিপরীতে হেঁটে সিপিসির পাশেই দাঁড়িয়েছিলেন জ‍্যাকি। তাঁর দাবি ছিল, এটা বেজিংয়ের বিরুদ্ধে চক্রান্ত।

সদস‍্যপদ গ্রহণের ইচ্ছাপ্রকাশ করার পর জ‍্যাকি চ‍্যান বলেন, “আমি হংকংয়ে জন্মেছি। চিন আমার দেশ। পৃথিবীর যে প্রান্তেই যাই সেখানেই চিনের প্রশংসা শুনি। পাঁচ তারা খচিত লাল পতাকার প্রতি সবাই শ্রদ্ধিশীল। গত কয়েক দশক ধরে চিন যেভাবে নিজের উন্নতি অগ্রসর করেছে তা সত‍্যিই প্রশংসনীয়।” অপরদিকে চিনা সরকারের সংবাদ মাধ‍্যমেও যে উচ্ছ্বাসের সঙ্গে জ‍্যাকি চ‍্যানের সদস‍্যপদ গ্রহণের ইচ্ছাপ্রকাশের খবর ছাপা হয়েছে তাতে বেশ স্পষ্ট যে সিপিসিরও এই বিষয়ে দ্বিমত নেই।

Avatar
Niranjana Nag

সম্পর্কিত খবর