পরিশুদ্ধ পানীয় জল থেকে মেট্রো রেল, যাদবপুরে BJP জিতলে কোন কোন পরিবর্তন আনবেন অনির্বাণ?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে (Loksabha Vote) বাংলার হাইভোল্টেজ কেন্দ্র গুলির মধ্যে একটি যাদবপুর (Jadavpur)। বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ আসন হতে চলেছে এই কেন্দ্র। যেখানে তৃণমূল দাঁড় করিয়েছে যুব নেত্রী সায়নী ঘোষকে। বামেদের বাজি সৃজন ভট্টাচার্য এবং বিজেপি প্রার্থী (BJP Candidate) উচ্চশিক্ষিত অনির্বাণ গাঙ্গুলি (Anirban Ganguly)। ১ জুন হাড্ডাহাড্ডি ত্রিমুখী লড়াই দেখতে চলেছে যাদবপুরবাসী।

গত এপ্রিল মাস থেকে শুরু হয়েছে ‘দিল্লি দখলের লড়াই’। ভোটের মুখে যাদবপুরের তৃণমূলের তারকা প্রার্থী সায়নী থেকে শুরু করে সিপিএমের সৃজন ভট্টাচার্যরাও ভোট প্রচারে ব্যস্ত ঠিকই। তবে নিজের নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই রাতদিন এক করে নিজের কেন্দ্রের প্রতিটি কোণা কোণা ঘুরে দেখছেন বিজেপির অনির্বাণ। গ্রাউন্ড লেভেল থেকে শুনছেন সাধারণ মানুষের অভাব-চাহিদার কথা।

চোখে একরাশ স্বপ্ন আর সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করার অদম্য ইচ্ছা নিয়ে এগিয়ে চলেছেন অনির্বাণ। তার কথায়, যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি জয়ী হলে প্রতিটি সাধারণ মানুষের সমস্যার সমাধান হবে। পাওয়া যাবে পরিশুদ্ধ পানীয় জল, পরিবহন ক্ষেত্রে উন্নত হবে মেট্রো রেল।

বিজেপি প্রার্থীর প্রতিশ্রুতি, যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে দল জয়ী হলে সাধারণ মানুষের সকল সমস্যার সমাধান হবে। পরিশুদ্ধ পানীয় জল থেকে শুরু করে মেট্রো রেল সম্প্রসারণ, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, ভয় মুক্ত পরিবেশ গড়ে তোলার অঙ্গীকার বিজেপি প্রার্থী অনির্বাণের।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের বিধানসভায় বোলপুর থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন অনির্বাণ। কিন্তু পরাজিত হন। এবারে যাদবপুরে দাঁড়িয়ে বিজেপি প্রার্থী বলেন, “যাদবপুরে আগের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদরা নির্বাচিত হওয়ার পরে কেন্দ্রের মানুষদের ভুলে গিয়েছিলেন। তাই ভোটারদের কাছে আমার আবেদন এমন কোনো প্রার্থীকে বেছে নিন, যিনি নির্বাচিত হওয়ার পর সারা বছর সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন।”

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সাল থেকে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের দখলে। তবে এর আগে এই কেন্দ্র থেকে হওয়া তৃণমূল সাংসদ কবীর সুমন, মিমি চক্রবর্তীদের নিয়ে এলাকার মানুষদের ক্ষোভ ছিল চোখে পড়ার মতো। বারংবার একই অভিযোগ শোনা গিয়েছে নিজেদের এলাকাতে খুবই কম দেখা যেত কবীর সুমন এবং মিমিকে। সাধারণ মানুষের দরকারে তাদের টিকির নাগাল কোনো দিন পাওয়া যায়নি।

anirban bjp

আরও পড়ুন: অভিজিৎ গাঙ্গুলি বিতর্ক অতীত! এবার RSS-এ যোগ দিতে চলেছেন হাইকোর্টের এই বিচারপতি, শোরগোল

এবারেরও তৃণমূল এই কেন্দ্রে প্রার্থী করেছে সায়নী ঘোষকে। তিনিও তারকা, অভিনেত্রী। তাই তাকে নিয়েও এই একই আশঙ্কা রয়েছে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে। যাদবপুর কেন্দ্রে নির্বাচন রয়েছে আগামী ১ জুন। এবার যাদবপুরের মানুষ কাকে আপন করে নেয় সেটাই দেখার।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর