মমতার প্রশংসা করতে গিয়ে চোখে জল, ফুঁপিয়ে কেঁদে ফেলেন জাস্টিস গাঙ্গুলি! তবে কী তৃণমূলে?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিচ্ছেন জাস্টিস অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Abhijit Ganguly)। গত রবিবারই একথা ঘোষণা করেছেন তিনি। সোমবার বিচারপতি হিসেবে শেষবারের মতো উপস্থিত হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে (Calcutta High Court)। চলতি বছর আগস্ট মাসে অবসর গ্রহণের কথা ছিল। তবে তার আগেই লোকসভা ভোটের আবহে ইস্তফা দিলেন তিনি। জোর জল্পনা, এবার রাজনীতির ময়দানে দেখা যাবে তাঁকে।

   

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Election 2024) বিজেপি প্রার্থী হিসেবে জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায়কে দেখা যাবে বলে কানাঘুষোও শোনা যাচ্ছে। এর মাঝেই জনপ্রিয় এক সংবাদমাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) তারিফ করেন তিনি। রাজনীতির দুনিয়ায় তৃণমূল সুপ্রিমোর অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খোলেন জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায়।

গত বছর ১১ সেপ্টেম্বর আরজি কর হাসপাতালে দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তারিফ করতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন এই বিচারপতি। কী এমন হয়েছিল সেদিন? পলতা নিবাসী ব্যারাকপুরের মহাদেবানন্দ কলেজের ছাত্রী সুনীতা বর্মা সেমিস্টার পরীক্ষা দিতে যাচ্ছিলেন। পলতা প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে ছিলেন, তবে ভিড়ের কারণে পা ফস্কে পড়ে যান সুনীতা। ট্রেনে দু’পা কাটা পড়ে তাঁর।

চিকিৎসার জন্য আরজি কর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় সুনীতাকে। তাঁকে দেখতে হাসপাতালে আসেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Ganguly)। সেখানেই তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই ওঁর পাশে আছি। আশা করি, আমাদের মুখ্যমন্ত্রী একজন অত্যন্ত সহৃদয় একজন মানুষ…’। কথা সম্পূর্ণ হওয়ার আগেই চোখে জল চলে আসে জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায়ের। ফুঁপিয়ে কেঁদে ফেলতে দেখা যায় তাঁকে। এরপর কোনও মতে নিজেকে সামলান।

আরও পড়ুনঃ ‘আপনার জন্যই সন্তানের চিকিৎসা’, ‘কী হবে আমাদের?’, জাস্টিস গাঙ্গুলিকে ঘিরে চোখের জলে ভাসল হাইকোর্ট

justice abhijit ganguly mamata banerjee

বর্তমানে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়েরর রাজনীতিতে যোগ দেওয়া স্রেফ সময়ের অপেক্ষা বলে মত অনেকের। সেই পরিস্থিতিতে সোমবার তাঁর মুখে শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সত্যিই একজন সরল মহিলা। দায়িত্বশীল এবং পুরনো রাজনীতিবিদ, যিনি ব্যক্তিগত আক্রমণকে গ্রাহ্য না করে বিরোধিতা চালিয়ে গিয়েছেন’। জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায়ের কথায়, ‘কংগ্রেসের বীরেরা যখন পালিয়েছেন, সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের মাথায় লাঠি খেয়েছেন, মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন’।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর