CID-র বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ! প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি বিচারপতি সিনহার স্বামীর, শোরগোল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ জমি সংক্রান্ত এক মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের নামে মানসিক নিগ্রহ করেছে সিআইডি (CID)। তার স্ত্রীর বিষয়ে নানাবিধ তথ্য জানার জন্য প্রশ্ন করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, স্ত্রীর বিরুদ্ধে নানা সাজানো বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে ক্রমাগত চাপ দেওয়া হয়েছে। এমনকি দেখানো হচ্ছে টাকা-বাড়ির লোভ। এসব অভিযোগ তুলেই এবার রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে (PM Narendra Modi) চিঠি দিলেন কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অমৃতা সিনহার (Justice Amrita Sinha) স্বামী আইনজীবি প্রতাপচন্দ্র দে।

   

সুত্রের খবর, কেবল প্রধানমন্ত্রীই নন, পাশাপাশি কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল, রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও সিআইডির বিরুদ্ধে চিঠি দিয়েছেন বিচারপতি অমৃতা সিনহার স্বামী। এই একই অভিযোগ তুলে এর আগে কলকাতা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনকে চিঠি দিয়েছেন প্রতাপচন্দ্রবাবু।

তার অভিযোগ, যেই মামলার জিজ্ঞাসাবাদে তাকে ডাকা হয়েছে সেই সম্পর্কে প্রশ্ন করার বদলে তার স্ত্রী বিচারপতি সিনহার বিষয়ে নানাবিধ তথ্য জানার জন্য তাকে প্রশ্ন করা শুরু করে সিআইডি অফিসারেরা। অভিযোগ, তার স্ত্রী জাস্টিস সিনহার বিরুদ্ধে নানা সাজানো বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে ক্রমাগত চাপ দেওয়া হয়েছে।

জমি সংক্রান্ত এক মামলায় অবৈধ ভাবে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিচারপতি অমৃতা সিনহার স্বামীকে আগামী ২২ ডিসেম্বর ফের ভবানী ভবনে তলব করেছে সিআইডি। এর আগে জিজ্ঞাসাবাদে প্রথম দিন তিন ঘন্টা ও দ্বিতীয় দিন ন’ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে নানা কুকথা বলার পাশাপাশি মানসিক নিপীড়নও চালানো হয়েছে তার ওপরে। এমনটাও অভিযোগ প্রতাপচন্দ্রের।

আরও পড়ুন: নতুন করে চোখ রাঙাচ্ছে ঘূর্ণাবর্ত! বছর শেষে ফের বৃষ্টির হম্বিতম্বি দক্ষিণবঙ্গে? আবহাওয়ার খবর

CID-র বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে বিচারপতির স্বামীর অভিযোগ, স্ত্রীর বিরুদ্ধে মিথ্যে বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে টাকা, বাড়ি, গাড়িরও অফার দেন তদন্তকারী অফিসাররা। প্রতাপচন্দ্রের অভিযোগ, সিআইডির কথা মতো না চললে তার গোটা পরিবারের সর্বনাশ করা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয় দ্বিতীয় দিনের জিজ্ঞাসাবাদে। পাশাপাশি অভিযোগ উপর মহল থেকে নির্দেশ এলে ভুয়ো মামলা দিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হবে।

justice sinha r

ওদিকে সিআইডি সূত্রে খবর, যে মামলায় বিচারপতির স্বামীকে ডেকে পাঠানো হয়েছে, সেটি সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন। জমি সংক্রান্ত ওই মামলায় কোনও বাড়তি পদক্ষেপ করা যাবে না বলে প্রথমে জানায় সুপ্রিম কোর্ট। এদিকে সম্প্রতি আদালত জানায়, অভিযোগের ভিত্তিতে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ করতে পারবে পুলিশ। তারপরই বিচারপতির স্বামীকে তলব করেছে সিআইডি। সিআইডির একটি সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, তদন্তে সহযোগিতা করেননি প্রচাপচন্দ্র।