টাকার অফার! স্ত্রীর নামে বয়ান লেখানোর জন্য চাপ দিচ্ছে CID, বিস্ফোরক বিচারপতি সিনহার স্বামী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ জমি সংক্রান্ত এক মামলায় নাম জড়িয়েছে কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অমৃতা সিনহার (Justice Amrita Sinha) স্বামী প্রতাপচন্দ্র দের। সম্প্রতি তাকে ডেকে বেশ কয়েকবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি। আর এরই মধ্যে রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন বিচারপতির স্বামী আইনজীবি প্রতাপচন্দ্র দে।

   

তার অভিযোগ, যেই মামলার জিজ্ঞাসাবাদে তাকে ডাকা হয়েছে সেই সম্পর্কে প্রশ্ন করার বদলে তার স্ত্রী বিচারপতি সিনহার বিষয়ে নানাবিধ তথ্য জানার জন্য তাকে প্রশ্ন করা শুরু করে সিআইডি অফিসারেরা। কলকাতা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনকে এক চিঠি দিয়েছেন প্রতাপচন্দ্র। সেখানেই তার অভিযোগ, তার স্ত্রী জাস্টিস সিনহার বিরুদ্ধে নানা সাজানো বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে ক্রমাগত চাপ দেওয়া হয়েছে।

দ্বিতীয় দিন ন’ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে নানা কুকথা বলার পাশাপাশি মানসিক নিপীড়নও চালানো হয়েছে তার ওপরে। এমনটাও অভিযোগ প্রতাপচন্দ্রের। মিথ্যে বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে টাকা, বাড়ি, গাড়িরও অফার দেন তদন্তকারী অফিসাররা। জমি সংক্রান্ত এক মামলায় অবৈধ ভাবে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিচারপতি অমৃতা সিনহার স্বামীকে আগামী ২২ ডিসেম্বর তাকে ভবানী ভবনে তলব করেছে সিআইডি।

আরও পড়ুন: কেঁচো খুঁড়তে কেউটে! অরণ্যভবন তল্লাশি করতেই জ্যোতিপ্ৰিয়র বিপুল সম্পত্তির হদিস পেল ED

সূত্রের দাবি, প্রতাপচন্দ্রের অভিযোগ, সিআইডির কথা মতো না চললে তার গোটা পরিবারের সর্বনাশ করা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয় দ্বিতীয় দিনের জিজ্ঞাসাবাদে। পাশাপাশি অভিযোগ উপর মহল থেকে নির্দেশ এলে ভুয়ো মামলা দিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হবে। তবে সেদিন গ্রেফতার করা না-হলেও, ভবানী ভবনে সিআইডি দফতর থেকে বেরনোর আগেই তাকে ফের তলবের নোটিস দেওয়া হয়েছিল।

justice sinha r

এর আগে গত ১ ডিসেম্বর বিচারপতির স্বামীকে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি। এদিকে গত শনিবার তাকে দ্বিতীয় বারের জন্য ন’ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। আর তারপরই বিস্ফোরক বিচারপতির স্বামী।

ঘটনাচক্রে, বর্তমানে বিচারপতি সিনহার এজলাসেই চলছে নিয়োগ সংক্রান্ত একটি মামলা। যেই মামলায় কিছু দিন আগেই তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আয়ের উৎস নিয়ে জানতে চেয়ে প্রশ্ন করেছিলেন বিচারপতি সিনহা। অভিষেকের সংস্থা ‘লিপ্‌স অ্যান্ড বাউন্ডস’ নিয়ে বিচারপতি সিনহার এজলাসে রিপোর্টও জমা দেয় ইডি। এরই মধ্যে বিচারপতি সিনহার স্বামীর এই বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে আসায় আইনজীবী মহলে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর