কেবিনে বড্ড একা জ্যোতিপ্ৰিয়! মন্ত্রীকে দেখতে হঠাৎ SSKM এ হাজির দুই ‘মেহমান’, হাসপাতালে শোরগোল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অসুস্থ হয়েছে বর্তমানে এসএসকেএম হাসপাতালের আইসিইউতে রয়েছেন রেশন দুর্নীতিতে (Ration Scam) ধৃত রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (Jyotipriya Mallick)। কেবিনে বড্ড একা বালু। এবার তার সর্বক্ষণের সঙ্গী হতে হাজির দুই অতিথি। বনমন্ত্রীর রুমের ভেতর লাগানো হল বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন দু দুটি ‘সেন্সর’ সিসি ক্যামেরা। যার দ্বারা অডিও, ভিডিও দুয়েই চলবে নজরদারি।

জ্যোতিপ্ৰিয়র রুমে সিসি ক্যামেরা

   

আদালতের নির্দেশের পর গতকালই জ্যোতিপ্ৰিয়র রুমে বসে সিসি ক্যামেরা। জেল ও হাসপাতাল সূত্রে আরও খবর, ক্যামেরার পাশাপাশি জ্যোতিপ্রিয়র রুমের বাইরে গেটের সামনে এবার থেকে রাখা থাকবে রেজিস্টার খাতা। মন্ত্রীমশাইয়ের রুমে কখন কোন ডাক্তার, নার্স ঢুকছেন সমস্ত কিছু লিখে ঢুকতে হবে।
সিসি ক্যামেরা ফিড লিংক থাকবে ইডির কাছে।

আদালতের কড়া নির্দেশ

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার আদালতে ইডি জানায় তারা জ্যোতিপ্ৰিয়র কোনও খোঁজ পাচ্ছে না। ইডির দাবি, উনি প্রভাবশালী মন্ত্রী। প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। ধৃত বনমন্ত্রী নিয়োগ দুর্নীতিতে ধৃত প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মতোই ‘প্রভাবশালী’। জেলে ও হাসপাতালে থাকা অবস্থায় যেকোনো সময় প্রমাণ লোপাট হয়ে যেতে পারে। এই জানিয়েই জ্যোতিপ্ৰিয়কে নজরদারিতে রাখার আবেদন জানায় ইডি।

এরপরই হাসপাতালে জ্যোতিপ্ৰিয়কে সিসি ক্যামেরার নজরদারিতে রাখার নির্দেশ দেয় কলকাতার বিচার ভবন। জেল সুপারকে এমনটাই নির্দেশ দিয়ে আদালত জানায় নজরদারির ভিডিয়ো ফুটেজ দিতে হবে ইডির অফিসারদের। জ্যোতিপ্রিয়ের স্বাস্থ্য-রিপোর্টও আদালতকে জানাতে হবে বলে নির্দেশ দেওয়া হয়। কোনও থার্ড পার্টি কেউ যাতে জ্যোতিপ্ৰিয় মল্লিকের রুমের ভিতরে না ঢোকে তার জন্য আদালত নির্দেশ দেয়। পাশাপাশি ডিজিটাল ডিভাইস নিয়ে কেউ জ্যোতিপ্রিয়র ঘরে ঢুকতে না পারে সেদিকেও যেন নজর দেওয়া হয়। এমন নির্দেশ দেয় আদালত।

আরও পড়ুন: সরকারি কর্মচারীর মৃত্যুর পর সহজেই চাকরি পাবেন নিকটাত্মীয়রা! নির্দেশিকা জারি করল অর্থ দফতর

অসুস্থ জ্যোতিপ্ৰিয়

প্রসঙ্গত, একাধিক শারীরিক সমস্যা থাকায় জেলযাত্রার ৯ দিনের মাথায় SSKM হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় জ্যোতিপ্ৰিয়কে। গ্রেফতারির পর থেকেই নিজের অসুস্থতার কথা জানিয়ে আসছেন জ্যোতিপ্ৰিয়। কখনও মিডিয়ার সামনে কখনও আদালতে নিজের শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জ্যোতিপ্ৰিয়।

ed balu 9

গত ২৭ অক্টোবর গ্রেফতারির পরদিন তাকে নিম্ন আদালতে পেশ করতেই তিনি অসুস্থ হয়ে যান। পরে যদিও টানা চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে ওঠেন। কিছুদিন আগে সিজিও থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার বাম হাত ও পা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করেছিলেন জ্যোতিপ্রিয়। মৃত্যুর কথাও উঠে এসেছিল বনমন্ত্রীর মুখে। জ্যোতিপ্ৰিয়র গ্রেফতারির পর তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।