টাইমলাইনবিনোদন

সলমন আমার বড় দাদার মতো’, গালিগালাজ ছেড়ে রাতারাতি সুর বদল কেআরকের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মনের কথা কখনো রাখঢাক করে বলেন না কামাল আর খান (kamal r khan)। সে যতই কটু হোক না কেন, সোশ‍্যাল মিডিয়ায় সর্বসমক্ষে শত্রুদের উদ্দেশে বিষবাক‍্য উগরে দিতে দেখা যায় তাঁকে। গত কয়েকদিন ধরে কেআরকের নিশানায় রয়েছেন সলমন খান (salman khan)। ‘রাধে’র হাস‍্যকর রিভিউয়ের পরেই তাঁর বিরুদ্ধে মানহানীর মামলা দায়ের করেছিলেন ভাইজান। যুদ্ধের শুরু তখন থেকেই।

তবে কেআরকের সাম্প্রতিক টুইট দেখে নেটিজেনরা মনে করছেন দুই খানের লড়াই বোধহয় এবার শেষের পথে। সম্প্রতি একটি টুইটে বেশ নরম সুর শোনা গিয়েছে কেআরকের কণ্ঠে। তিনি লিখেছেন, ‘আমি সংবাদ মাধ‍্যমকে অনুরোধ করছি, আমার সব টুইটে সলমন খানের সঙ্গে যোগসূত্র খুঁজবেন না। আমাদের মধ‍্যে হয়তো একটু ভুল বোঝাবুঝি আছে, কিন্তু তা সত্ত্বেও উনি আমার বড় দাদা। আমি ওঁর শত্রু নই, ওঁকে ঘৃণাও করি না আর সবকিছু ওঁকে উদ্দেশ‍্য করে টুইটও করি না। আরো অনেক অভিনেতা রয়েছে, আমি তাঁদের ব‍্যাপারে টুইট করি।’


উল্লেখ‍্য, গত কয়েকদিন ধরেই নাম না করে ভাইজানের উদ্দেশে কটাক্ষ শানাতে দেখা গিয়েছে কেআরকে কে। সম্প্রতি সলমনের সাপের কামড় খাওয়া নিয়ে কুরুচিকর কটাক্ষ করেছিলেন তিনি। তারপর নাম না করে অভিনেতাকে হুমকিও দেন কামাল আর খান। সলমনের শেষ পাঁচটি ছবি একেবারেই ভাল ব‍্যবসা করতে পারেনি বক্স অফিসে। দাবাং থ্রি, ভারত, রেস থ্রি, রাধে, অন্তিম কোনোটাই আশানুরূপ ফল করতে পারেনি। বিশেষত রেস থ্রি ও রাধের জন‍্য ট্রোলও হতে হয়েছিল ভাইজানকে।

সেই প্রসঙ্গ তুলে নাম না করেই কেআরকে লেখেন, ‘বুড়ো তারকার শেষ পাঁচটি ছবি সম্পূর্ণ ফ্লপ। শেষ দুটি ছবি মোট ২৫ কোটি টাকার ব‍্যবসা করেছে! তার মানে এখন উনি বরুন ও অর্জুনের পর্যায়ে নেমে এসেছেন। আমি প্রতিজ্ঞা করছি আগামী ২ বছরে ওঁর স্টারডম ধ্বংস করে দেব। উনি যতক্ষণ না শূন‍্যতে নেমে আসেন ততক্ষণ আমি থামব না।’


নাম না করলেও কারোর বুঝতে অসুবিধা হয়নি যে কেআরকে সলমনকেই কটাক্ষ করেছেন। ফলতঃ ভাইজান ভক্তদের ট্রোলের মুখে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। তবুও থামেননি কামাল। তাহলে হঠাৎ কী এমন ঘটল যে উলটো সুর গাইছেন তিনি? কতদিনই বা এই ভ্রাতৃপ্রীতি বজায় রাখবেন কেআরকে সেটাই এখন দেখার।

Related Articles

Back to top button