‘মশা অবুঝ প্রাণী…জন্ম নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সচেতন করা যায় না’, ডেঙ্গু বাড়তেই মন্তব্য কুণালের, সমালোচনা তুঙ্গে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ফের ডেঙ্গুর সংক্রমণ নিয়ে হইচই শুরু হয়েছে। রাজ্যজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বাংলাদেশে ডেঙ্গুর বাড়বাড়ন্তে এখানে সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বলেও প্রশাসন দাবি করছে। এবার সেই একই সুরে কথা বললেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। প্রশাসন নয় বরং ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ার জন্য বেশ কিছু বিষয়কে দায়ী করলেন তিনি।

ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে কথা প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র ও রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) বলেন, ‘ডেঙ্গি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন যা করার করছে।’ পাশাপাশি তার আরোও সংযোজন, “কিন্তু সাধারণ নাগরিকদেরও কিছু কর্তব্য আছে। বাড়িতে জল জমিয়ে রাখবেন না। টবে, বাড়ির ছাদের ট্যাঙ্কে বা কোনও কিছুতে যাতে জল না জমে তা দেখাও সাধারণের কর্তব্য।”

আরোও পড়ুন : ২৯ সেপ্টেম্বর রাজ্যজুড়ে বন্ধ সবকিছু! পুজোর আগেই বড় খবর, কারণ কী?

যখন প্রত্যেক নাগরিককে বাড়ি ও তার সংলগ্ন এলাকা পরিস্কার করার কথা বলা হচ্ছে ঠিক সেই পরিস্থিতিতে কুণাল বলেন, ‘সরকারের প্রত্যেক বাড়ির ভিতর ঢুকে দেখা সম্ভব নয়, সেটা একজন নাগরিককেই করতে হবে।’ তাঁর মতে, অন্য রাজ্যের ও বাংলাদেশের মানুষও সেখানে আক্রান্ত হয়ে এখানে ভর্তি হচ্ছেন। ফলে, এরাজ্যের পরিস্থিতির জন্য অন্য রাজ্যের মানুষও দায়ী।

39409 dengue virus

কুণালের কথায়, ‘মশা অবুঝ প্রাণী, তার জন্ম নিয়ন্ত্রণ একটা কঠিন বিষয়। মানুষের মধ্যে জন্ম নিয়ন্ত্রণ নিয়ে যে ভাবে সচেতনতা মূলক প্রচার করা সহজ তা মশাদের মধ্যে করা সম্ভব নয়।’ নেটিজেনদের একাংশ তার এই মন্তব্যে মস্করা শুরু করলেও পতঙ্গবিদদের দাবি, কুণাল ঘোষ কথাটি ভুল বলেননি। মশার বংশ বৃদ্ধি ঠেকানো খুব কঠিন কাজ। তাই নাগরিক ও প্রশাসনকে এবিষয়ে সচেষ্ট হতে হবে বলে পরামর্শ পতঙ্গবিদদের।

 

 

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর