‘স্বার্থপর…’, ভোটের আগেই তৃণমূল ‘নাম’ মুছলেন কুণাল, শীঘ্রই ছাড়ছেন দল? তোলপাড় রাজ্য

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বৃহস্পতিবার রাতে এক্স হ্যান্ডেলে একটি ‘বিস্ফোরক’ পোস্ট করেন কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। কিন্তু শুক্রবার সকাল হতেই তা নিল অন্য ‘মোড়’! আজ দেখা গেল, বদল এসেছে কুণাল ঘোষের বায়োতে। সেখান থেকে তৃণমূল মুখপাত্র তথা রাজনীতিকের পরিচয় মুছেছেন তিনি। নিজের পরিচয় দিয়েছেন স্রেফ ‘সাংবাদিক’ এবং ‘সমাজকর্মী’ হিসেবে। তাহলে কি পদ ছাড়তে চাইছেন তিনি? শুরু হয়েছে তীব্র জল্পনা।

গত প্রায় দু’মাস ধরে সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে একাধিকবার সরব হয়েছেন কুণাল ঘোষ। নানান সময়ে সরকার এবং দলের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন তিনি। এবার তিনিই নিজের এক্স হ্যান্ডেলের বায়ো থেকে মুছে ফেললেন নিজের রাজনৈতিক পরিচয়! তাহলে কি লোকসভা ভোটের আগেই তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) রাজ্য সাধারণ সম্পাদক এবং মুখপাত্রের পদ ছাড়তে পারেন তিনি? ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে খবর, গতকাল রাত ১২টা অবধি কুণাল ঘোষের এক্স হ্যান্ডেলে তাঁর রাজনৈতিক পরিচয়ের উল্লেখ ছিল। এরপর তা মুছে ফেলা হয়। এখন নিজেকে শুধুই ‘সাংবাদিক’ এবং ‘সমাজকর্মী’ পরিচয় দিয়েছেন তিনি। কুণাল ঘোষের এক্স হ্যান্ডেলের বায়োতে (X Handle Bio) বদল আসার পর থেকে তাঁর পদ ছাড়ার জল্পনা শুরু হলেও এই বিষয়ে এখনও তিনি কোনও মন্তব্য করেননি।

কুণালের টুইট: https://x.com/KunalGhoshAgain/status/1763227470143357219?s=20

শুক্রবার সকাল থেকে একাধিক সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাঁর ফোন ‘সুইচ অফ’ পাওয়া গিয়েছে। এই বিষয়ে তাঁর ঘনিষ্ঠমহলকে উদ্ধৃত করে এক নামী সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, এক্স বায়োর বদল নিয়ে নানান প্রশ্ন আসবে বলেই আপাতত নিজের ফোন বন্ধ রেখেছেন কুণাল ঘোষ। তিনি নিজে যখন কিছু মন্তব্য করতে চাইবেন তখনই নিজের ফোন খুলবেন।

kunal gs

আরও পড়ুন: ‘ওই ঘরের ভিতরে ঢুকতেই, ঘণ্টার পর ঘণ্টা…’, ভোটের দিন কী চলত সন্দেশখালিতে? শুনলে শিউরে উঠবেন

প্রসঙ্গত, বায়ো বদলের আগে বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ৯ মিনিটে নিজের এক্স হ্যান্ডেলে একটি পোস্ট করেছিলেন কুণাল ঘোষ। নাম না করলেও তাঁর নিশানায় যে দলেরই কোনও নেতা, তা স্পষ্ট! তিনি লেখেন, ‘নেতা অযোগ্য গ্রুপবাজ স্বার্থপর। সারাবছর ছ্যাঁচড়ামি করবে আর ভোটের মুখে দিদি, অভিষেক। দলের প্রতি কর্মীদের আবেগের ওপর ভর করে জিতে যাবে, ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধি করবে, সেটা বারবার হতে পারে না’। কুণাল ঘোষের এই পোস্টের পর এক্স বায়োর বদল তাঁর পদ ছাড়ার জল্পনা অনেকখানি উস্কে দিয়েছে। আপাতত তাঁর প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় রয়েছে সকলে।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর