এবার কী পদত্যাগ? পিসি-ভাইপোর সংঘাতের মাঝেই বড় বয়ান দিলেন কুণাল ঘোষ

বাংলা হান্ট ডেস্ক : গুজব বলছে, মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) এবং অভিষেক ব্যানার্জির (Abhishek Banerjee) মধ্যে চলছে ঠান্ডা লড়াই। রাজনৈতিক মহলের প্রশ্ন, তবে কি দিনদিন বেড়েই চলেছে দলীয় সংঘাত? নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের সমাবেশে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি না থাকা নিয়ে তোলা হয়েছে প্রশ্ন। তৃণমূলের অন্দরের এই বিভেদ পতনের শুরু বলেই জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। এসবের মধ্যেই মুখ খুললেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)।

মমতা বনাম অভিষেক নয়

   

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে কুণাল ঘোষকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, মমতা বনাম অভিষেক নয়, মমতা ও অভিষেক। পাশাপাশি তিনি এটাও বলেছেন, সিপিএম সুলভ মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। দেহত্যাগ না করা পর্যন্ত পদত্যাগ করব না এই মানসিকতা গোটা দলের জন্যই ক্ষতিকর বলে জানিয়েছেন তিনি। সেই সাথে শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) জন্যই ছুঁড়ে দিলেন তীব্র কটাক্ষ।

শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে কুণালের ব্যাখ্যা

বিরোধী দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে কুণালের ব্যাখ্যা, ‘কথা বলতে শুভেন্দু মমতাদির প্রোডাক্ট। তৃণমূলের থাকার সময় তাকে সব ক্ষমতা দিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বানিয়েছিলেন মমতাদি। আর এখন বিজেপিতে তিনি শুভেন্দু অধিকারী হলেন কী করে? কারণ নন্দীগ্রাম আর লোডশেডিং।’ তবে কুণালের সমালোচনা থেকে পার পেলেননা খোদ নেত্রীও। পাশাপাশি অভিষেকের ছবি না থাকা নিয়েও দিলেন জবাবদিহি।

অভিষেকের ছবি না থাকা নিয়ে কুণালের কী মত?

অভিষেকের ছবি না থাকা নিয়ে কুণাল বলেন, ‘ কারা এটা করেছেন, আমি বলতে পারব না। তবে এটা ঠিক হয়নি। এখন অভিষেকের ছবি ছাড়া তৃণমূলের মঞ্চ অসম্পূর্ণ। এটা হতে পারে না।’ কুণাল ঘোষের এই মন্তব্যের পর থেকেই শুরু হয়েছে জল্পনা। এইদিন কার সাক্ষাৎকারে কুণাল বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখে মানুষ ভোট দেন, এটা যেমন ঠিক। তেমনই এই দলের জন্য অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক পরিশ্রম এবং আত্মত্যাগ করেছেন।’

একজন দলের আবেগ অপরজন চালনা শক্তি

যদিও সবশেষে কুণাল ঘোষের মত এটাই যে, ‘মমতাদি বনাম অভিষেক নয়, মমতা ও অভিষেক। দুজনেই দলের জন্য সমান গুরুত্বপূর্ণ। অভিষেক ছাড়া মমতাদি অসম্পূর্ণ।’ তার মতে, একজন হলেন দলের আবেগ এবং অপরজন চালনা শক্তি। রাজ্যের যুব সমাজকে উদ্বুদ্ধ করা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক কর্মসূচি দেওয়ার কাজ করছেন তিনি।