ফের বাড়ল লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা! কবে থেকে অ্যাকাউন্টে ঢুকবে? বিরাট ঘোষণা সরকারের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে একাধিক উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিশেষত মহিলাদের উন্নয়নে বিশেষ নজর দিয়েছেন তিনি। রাজ্য সরকারের চালু করা এমনই একটি স্কিম হল লক্ষ্মীর ভাণ্ডার (Lakshmir Bhandar)। এর মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় ২ কোটি মহিলা উপকৃত হন। সম্প্রতি পেশ হওয়া রাজ্য বাজেটে এই প্রকল্পের টাকা বাড়ানো হয়েছে।

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের এই বর্ধিত টাকা কবে থেকে অ্যাকাউন্টে ঢুকবে এই প্রশ্ন অনেকের মনেই ঘুরপাক খাচ্ছিল। অবশেষে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে সেকথা জানিয়ে দিল রাজ্য সরকার (Government of West Bengal)। মুখ্যমন্ত্রী কথার খেলাপ করেন না, তিনি প্রতিশ্রুতি দিলে সেটা নিশ্চয়ই রাখবেন, অনেকেরই এই বিশ্বাস। লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের বর্ধিত টাকাও যে অ্যাকাউন্টে ঢুকবে এটা নিয়ে নিশ্চিত ছিলেন তাঁরা। অবশেষে সরকারের তরফ থেকে অফিশিয়াল ঘোষণা করে দেওয়া হল।

২০২৪-২৫ বর্ষের বাজেট পেশ করার সময়ই লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছিলেন অর্থ দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য (Chandrima Bhattacharya)। এতদিন অবধি এই প্রকল্পে সাধারণ শ্রেণির মহিলারা মাসিক ৫০০ টাকা এবং তপশিলি জাতি এবং উপজাতি শ্রেণির মহিলারা ১০০০ টাকা করে পেতেন। তবে এবারের বাজেটে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এই টাকা বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করা হয়েছে। মার্চ মাসের শুরুতেই এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো রাজ্য সরকার।

আগামী এপ্রিল মাস থেকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের এই টাকা উপভোক্তাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে। ভাতা বৃদ্ধির ফলে এবার সাধারণ শ্রেণির মহিলারা ৫০০ টাকার বদলে প্রত্যেক মাসে ১০০০ টাকা করে পাবেন। একইরকমভাবে তপশিলি জাতি এবং উপজাতির মহিলাদের ভাতার অঙ্কও বৃদ্ধি করেছে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুনঃ ৬৯ নয়, আসল বয়স কত? ‘দিদি নম্বর ওয়ান’এর মঞ্চে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

lakshmir bhandar scheme

১০০০ টাকার পরিবর্তে এবার মাসিক ১২০০ টাকা করে পাবেন তাঁরা । কয়েকদিন আগেই ঝাড়গ্রামের সভা থেকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প নিয়ে বড় বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি বলেছিলেন, আগামী এপ্রিল মাস থেকেই এই প্রকল্পের টাকা দ্বিগুণ হয়ে যাবে। এতদিন যারা ৫০০ টাকা করে পেতেন, এবার তাঁরা ১০০০ টাকা করে পাবেন।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর