fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

করোনা ভাইরাসের পর নতুন আতঙ্ক ‘লাসা’

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ চিনের সঙ্গে সঙ্গে সারা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। এমনকি ভারতেও এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন মানুষ। চিনে এখনও পর্যন্ত ১০০০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। আড়াই লাখেরও বেশি আক্রান্ত এই ভাইরাসে। মাস্ক ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরই হচ্ছেন না মানুষ। চিনে অব্যাহত রয়েছে মৃত্যুমিছিল। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী মেইনল্যান্ড চায়নায় এখনও পর্যন্ত ১১১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনা ভাইরাসে। কেউই জানেন না কোথায় গিয়ে থামবে এই মৃত্যুমিছিল।

এই আতঙ্কের সাথে জুড়েছে আরেক আতঙ্ক ‘লাসা’। নাইজেরিয়ার তিনটি প্রদেশে ইতিমধ্যেই লাসা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে মূলত ইঁদুর থেকে। ‘লাসা’ জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সংবাদ সংস্থার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত আন্ডো, ডেলটা এবং কাদুনা প্রদেশে চারজন স্বাস্থ্যকর্মীর দেহে নতুন করে সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

জানা যাচ্ছে, মোট ৪৭২ জন আক্রান্ত হয়েছেন ‘লাসা’ জ্বরে। মূলত নেংটি ইঁদুর থেকেই ছড়ায় ভাইরাস। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় দেখা যায় না কোনো উপসর্গ। ‘লাসা’ জ্বরে আক্রান্ত হলে শরীরের তাপমাত্রা হঠাত্‍ করেই অনেকটা বেড়ে যায়।

সঙ্গে মাথাব্যথা, মুখে ঘা, মাংসপেশিতে ঘা, ত্বকের নীচে রক্তরক্ষণ। এমনকি হৃদযন্ত্র বা কিডনি অচল হয়ে যেতে পারে। এই জ্বরে আক্রান্ত হলে ২১ দিন পর্যন্ত পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তবে রোগীর সংস্পর্শ এলেই পাশের জনের মধ্যে তা সংক্রামিত হতে পারে। এছাড়াও আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে অন্য কারও শরীরে রক্ত বা রক্তজাতীয় পদার্থ, থুতু সঞ্চালনের মাধ্যমেও ছড়ায় ‘লাসা’।

 

Back to top button
Close
Close