১ এপ্রিল পেমেন্ট পেলেন না গৃহকর্ত্রীরা! লক্ষীর ভান্ডারের টাকা নিয়ে বড়সড় ঘোষণা রাজ্যের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় আসার পর একাধিক জনমুখী প্রকল্প শুরু করে। এই প্রকল্পগুলোর মধ্যে  সব থেকে জনপ্রিয় প্রকল্প হল লক্ষীর ভান্ডার। অনেকেই মনে করেন রাজ্যে তৃণমূলের তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পিছনে অন্যতম বড় কারণ হল এই লক্ষীর ভান্ডার। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বিরাট সাফল্যের পিছনে ছিল এই লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প।

   

পূর্বে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের অধীনে প্রতিমাসে মহিলাদের ৫০০ ও ১০০০ টাকা ভাতা দেওয়া হত সরকারের পক্ষ থেকে। তবে সম্প্রতি তৃণমূল সরকার সেই ভাতার পরিমান বৃদ্ধি করে। সাধারণ শ্রেণীর মহিলাদের ৫০০ টাকা থেকে ভাতা বাড়িয়ে ১০০০ টাকা ও তপশিলি জাতি ও উপজাতি শ্রেণীর মহিলাদের ১০০০ টাকা থেকে ভাতা বাড়িয়ে ১২০০ টাকা করেছে সরকার।

আরোও পড়ুন : ভয়ঙ্কর কাঁপুনি! হুড়মুড়িয়ে ধসে গেল বাড়ির দেওয়াল, গার্ডেনরিচের পর এবার তোলপাড় মুচিপাড়ায়

আগামী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও তৃণমূল এই প্রকল্পকে অন্যতম হাতিয়ার করছে। অনেক আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন বর্ধিত ভাতা মহিলারা এপ্রিলের শুরুতেই পেয়ে যাবেন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। তবে বহু মহিলাই অভিযোগ করেছেন যে ১ লা এপ্রিল তাদের অ্যাকাউন্টে লক্ষীর ভান্ডারের টাকা ঢোকেনি। এই অবস্থায় অনেকেই চিন্তিত।

আরোও পড়ুন : ‘শাড়ির আঁচল’ মন্তব্যে তুমুল জলঘোলা! অবশেষে মুখ খুললেন মমতা শঙ্কর, দিলেন সাফাই

তবে আপনাদের জানিয়ে রাখি এই বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। নতুন আর্থিক বছর শুরুর প্রথম দিন অর্থাৎ ১লা এপ্রিল প্রতিবছর ব্যাংক বন্ধ থাকে। তাই হয় না কোনও লেনদেন। সেই জন্য ১ লা এপ্রিল কারোর অ্যাকাউন্টেই ঢোকেনি লক্ষীর ভান্ডারের টাকা। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে স্বাভাবিক নিয়মে শুরু হয়েছে ব্যাংকের কাজ।

laxmi bhandar

তাই অনেকেই বলছেন আজ থেকে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকতে শুরু করবেন লক্ষীর ভান্ডারের টাকা। তবে একদিনেই যে সবার অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকবে এমন কিন্তু নয়। এক্ষেত্রে কিছুদিন দেরিও হতে পারে। তাই চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। কিছুটা দেরিতে হলেও ব্যাংকে ঢুকে যাবে লক্ষীর ভান্ডারের ভাতা।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর