শিউরে ওঠার মতো ঘটনা! লোকাল ট্রেনের এক কামরার উপর আরেকটা! ব্যাপক হইচই আসানসোলে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : লোকাল ট্রেনের কামরার ওপর উঠে গিয়েছে অন্য একটি কোচ। যা দেখলে আতকে উঠবেন প্রত্যেকেই। তবে কি ফের রেল দুর্ঘটনা। ভারতীয় রেলে দুর্ঘটনা যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না। একের পর এক ভয়ঙ্কর রেল দুর্ঘটনা। যার জেরে প্রাণ হারাচ্ছেন শয়ে শয়ে মানুষ। আহত হয়ে বিছানায় শয্যাশায়ী আরও অনেকেই। বরাত জোড়েও বেঁচে যাচ্ছেন কেউ কেউ।

এবার ভয়ংকর দৃশ্য সামনে এল আসানসোল ডিভিশনে। যদিও এটি কোন দুর্ঘটনা নয়। বরং ইচ্ছাকৃতভাবে ঘটানো হয়েছে। তবে তার পিছনে রয়েছে বড় উদ্দেশ্য। আসলে ট্রেন দুর্ঘটনার সময় কীভাবে দ্রুত উদ্ধার কাজ চালানো যাবে, তারই প্রশিক্ষণ হয়েছে। এমনটাই জানা গিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে।

আরোও পড়ুন : শাহজাহানের সূত্র ধরে ED দফতরে হাজির রহস্যময়ী রমণী! মহিলার বাবার পরিচয় মাথা ঘুরিয়ে দেবে

সম্প্রতি আসানসোল ডিভিশনের আসানসোল স্টেশনের ইয়ার্ডে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছিল। উদ্ধার কার্যের প্রশিক্ষণের জন্য একটি ফুল স্কেল মক ড্রিল আয়োজন করা হয়েছিল। যেখানে অংশগ্রহণ করেছিলেন এনডিআরএফের কর্মীরা। ছিল ফায়ার ব্রিগেড। এছাড়াও এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেছিল এক্সিডেন্ট রিলিফ টিম, এক্সিডেন্ট রিলিফ মেডিকেল ভ্যানের মত পরিষেবা।

আরোও পড়ুন : DA নয়, এবার রাজ্যবাসীর জন্য বড় ঘোষণা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের, সবাই পাবে মোটা টাকা! জানুন কীভাবে

ব্যবহার করা হয়েছে ইএমইউ’ এর অর্থাৎ লোকাল ট্রেনের তিনটি কোচ। যার মধ্যে দুটি কোচ ছিল সঙ্গীন অবস্থায়। আর সেই দুটিকে নিয়ে চালানো হয়েছিল উদ্ধার কার্যের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি। রেল দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, এই প্রশিক্ষণের মূল উদ্দেশ্য ছিল কোনও দুর্ঘটনা হলে যাতে দ্রুত উদ্ধার কার্য চালানো যায়। সেই লক্ষ্যে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছিল।

img 20240227 140318

 

আসলে ভারতের মতো দেশে রেল পরিষেবা হলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম। তাই ভারতীয় রেল সব সময় যাত্রী সুরক্ষার দিকে সতর্ক। এছাড়াও যাত্রী স্বাচ্ছন্দের কথা মাথায় রেখে মাঝেমধ্যে নতুন নতুন পরিষেবা চালু করে ভারতীয় রেল। তা সত্ত্বেও মাঝে মধ্যে ঘটে যায় বড়সড়ো দুর্ঘটনা। তাই দুর্ঘটনায় মোকাবিলা এবার প্রশিক্ষণের আয়োজন করল ভারতীয় রেল।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর