এটিই ভারতের বৃহত্তম সমুদ্র সেতু! ১৮ টাকায় পৌঁছে যাবেন ১ কিমি, জানেন কোথায় আছে?

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আগামী ১২ই জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উদ্বোধন করতে চলেছেন ভারতের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুর।  উদ্বোধনের পর সাধারণ মানুষের জন্য এই সমুদ্র সেতু খুলে দেওয়া হবে। ভারতের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুর নাম দেওয়া হয়েছে অটল সেতু। অটল সেতু মুম্বইয়ের সেওরি থেকে রায়গড়ের নাভা সেভা পর্যন্ত বিস্তৃত।

   

বর্তমানে দীর্ঘ এই পথ অতিক্রম করতে ২ ঘণ্টা মতো সময় লাগে। তবে সেতুর উপর দিয়ে এই পথ অতিক্রম করতে লাগবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট। এই সেতুতে থাকছে টোল ট্যাক্স। অটল সেতুর দৈর্ঘ্য ২১.৮ কিলোমিটার। সম্প্রতি এই সেতুর টোল ট্যাক্স এর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভায়।

আরোও পড়ুন : এক দশক পর বড়সড় বদল! এবার নতুনভাবে তৈরি হচ্ছে উচ্চ মাধ্যমিকের সিলেবাস, ফেব্রুয়ারিতেই মডেল প্রশ্নপত্র

টোল ট্যাক্স কত হবে তা নিয়ে অতীতে একাধিক বার জলঘোলা হয়েছে। একটা সময় প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল এই সেতুর টোল ট্যাক্স ৫০০ টাকা করার। দীর্ঘ আলোচনার পর ঠিক হয়েছে একবার সেতুর এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যাওয়ার জন্য দিতে হবে ২৫০ টাকা টোল ট্যাক্স। তবে আসা-যাওয়ার জন্য টোল ট্যাক্স দিতে হবে ৫০০ টাকা।

আরোও পড়ুন : গঙ্গাসাগর যাওয়ার ঝক্কি শেষ, তৈরি হবে সেতু! বড় ঘোষণা রাজ্য সরকারের

বলা হচ্ছে প্রতিদিন ৭০ হাজার যানবাহন এই সেতুর উপর দিয়ে চলাচল করবে। প্রতিদিন ৭০ হাজার যান চলাচল করলে শুধুমাত্র একদিক থেকে সরকারের আয় হবে ১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা। কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন এই সেতু দিয়ে চলাচল করলে ৫০০ টাকার জ্বালানি বাঁচবে। ২৫০ টাকা টোল ট্যাক্স দিতে হবে একদিক থেকে অন্য দিকে যাওয়ার জন্য।

Sea Bridge,Atal setu,Car commuters,Mumbai,মুম্বাই,অটল সেতু,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

একসাথে যদি দু দিকের টোল দিতে হয় তাহলে ট্যাক্স বাবদ সরকারকে দিতে হবে ৩৭৫ টাকা। অংকের হিসাবে ১৮ টাকা প্রতি কিলোমিটার খরচ হবে সেক্ষেত্রে। দৈনিক পাসের মূল্য  ৬২৫ টাকা ও মাসিক পাসের মূল্য হবে ১২ হাজার ৫০০ টাকা ধার্য্য করা হয়েছে। ৬ লেনের অটল সেতু তৈরি করতে খরচ হয়েছে ১৭,৮৪৩ কোটি টাকা। ২২ কিলোমিটারের মধ্যে সমুদ্রের উপর রয়েছে এই সেতুর ১৬.৫০ কিলোমিটার অংশ।

সম্পর্কিত খবর