টাইমলাইনভারত

মসজিদের লাউডস্পীকার লাগানোর অনুমতি দিলে সামাজিক ভারসম্য নষ্ট হতে পারেঃ জানিয়ে দিলো হাইকোর্ট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উত্তর প্রদেশের একটি গ্রামে মসজিদে লাউডস্পীকার আর অ্যামপ্লিফায়ার লাগানো এসডিএম দ্বারা লাগু নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া যাবেনা বলে জানিয়েছে এলাহাবাদ হাইকোর্ট। আদালত এসডিএমের আদেশে বিচার এখতিয়ার উপযোগ করে হস্তক্ষেপ করার থেকে না করে দেয়। আদালত জানায়, এসডিএম এর আদেশ রদ করা হলে সামাজিক ভারসম্য নষ্ট হতে পারে। এসডিএম দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে বিবাদ থামানোর জন্য কোন ধার্মিক স্থলে এই প্রকারের উপকরণ না লাগানোর আদেশ দেয়।

আবেদন যারা দাখিল করেছিল, তাঁরা জানিয়েছিল যে মসজিদে রোজ পাঁচ ওয়াক্তের নামাজের সময় দুই মিনিট করে লাউডস্পীকার বাজানর অনুমতি যেন দেওয়া হয়। তাঁরা দাবি করেছিলে, এর ফলে দূষণ আর সামাজিক ব্যাবস্থার কোন ক্ষতি হবেনা। এটা তাঁদের ধার্মিক কাজের অংশ, জনসংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে আর এর জন্য নামাজের সময় সবাইকে লাউডস্পীকারের মাধ্যমে ডাকা জরুরি।

এই দাবি নাকোচ করে বিচারক পঙ্কজ মিত্তল আর বিচারক বিপিন চন্দ্র দীক্ষিত বলেন, সংবিধানের ২৫(১) ধারা অনুযায়ী সমস্ত নাগরিককে তাঁদের ধর্ম পালন আর প্রচারের অনুমতি দেওয়া হয়। আরেকদিকে, হাইকোর্টের প্রাথমিকতা হল সমাজের সামাঞ্জস্য বজায় রাখার জন্য আইনের ঠিক ভাবে প্রয়োগ করা। আর বর্তমান পরিস্থিতিতে এটা পরিস্কার যে, ধর্ম প্রচারের আপাতত দরকার নেই। সামাজিক সামঞ্জস্য বজায় রাখার জন্য এটা অত্যন্ত জরুরি।

Back to top button
Close