মূক, বধির নাবালিকাকে স্কুলের মধ্যে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ! মালদার কাণ্ডে শিউরে উঠবেন

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ফের একবার গণধর্ষণের (Gang Rape) অভিযোগে উত্তপ্ত বাংলা। আরও একবার গণধর্ষণের অভিযোগে উত্তেজনা ছড়াল মালদহ জেলায়। অভিযোগ এক মূক ও বধির নাবালিকাকে কয়েকজন দুষ্কৃতী গণধর্ষণ করে একটি স্কুলে নিয়ে গিয়ে। এই ঘটনার জেরে রীতিমতো উত্তেজনা ছড়িয়েছে মালদহের (Malda) মোথাবাড়ি এলাকায়।

সূত্রের খবর, ওই নির্যাতিতা নাবালিকার বাড়ি মালদহের মোথাবাড়ি এলাকায়। বাড়ির কাছের একটি জায়গায় খেলা করছিল ওই নাবালিকাটি। অভিযোগ সেই সময় তিনজন যুবক এসে ওই নাবালিকাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় কাছের একটি স্কুলে। কথা বলতে না পারার জন্য ওই নাবালিকা মেয়েটি চিৎকার করতে পারেনি সেই সময়।

   

আরোও পড়ুন : বাংলার এই জায়গাতেই প্রায় অর্ধেক দামে বিক্রি হচ্ছে পদ্মার ইলিশ! ভিড় জমাচ্ছেন শ’য়ে শ’য়ে মানুষ

সেই সুযোগে দুষ্কৃতীরা ওই নাবালিকাকে একটি স্থানীয় স্কুলে নিয়ে যায়। এরপর ওই নাবালিকার উপর চলে চরম অত্যাচার। নির্যাতিতার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, রাস্তা থেকে তিনজন দুষ্কৃতী তাদের পরিবারের মেয়েকে একটি স্কুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করেছে। মূক ও বধির হওয়ায় ওই মেয়েটি চিৎকার করে কাউকে জড়ো করতে পারেনি।

আরোও পড়ুন : এবার রূপান্তরকামীরাও চাকরি পাবে কলকাতা পুলিশে, প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটপাড়া

অনেকক্ষণ ওই মেয়েটিকে দেখতে না পাওয়ায় তার পরিবারের লোকেরা অনুসন্ধান শুরু করেন। এরপর পরিবারের লোকেরা নাবালিকাকে উদ্ধার করেন স্থানীয় একটি স্কুল থেকে। তিনজনের বিরুদ্ধে এই ঘটনায় নাবালিকার পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। যদিও এই ঘটনার পর থেকে ওই তিনজন অভিযুক্ত পলাতক।

rape

তিনজনের সন্ধানে পুলিশ শুরু করেছে তদন্ত। প্রসঙ্গত, গত মার্চ মাসে গণধর্ষণের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে মালদা। সেই সময়ও অভিযোগ ছিল একটি স্কুলে এক নাবালিকাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। সেই ঘটনার রেশ পুরো কাটার আগে ফের একবার স্কুলে নাবালিকা ধর্ষণের অভিযোগ উঠল মালদা জেলায়।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর