মুখে বাঁচানোর আর্জি, হাতে মশাল! ঢাকার রাজপথে প্রতিবাদ বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দুদের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : অগ্নিগর্ভ বাংলাদেশ (Bangladesh)। অবশেষে এবার অধিকারের ও সুরক্ষার দাবিতে রাস্তায় নামলেন বাংলাদেশের সংখ্যলঘুরা। বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ শুক্রবার মশাল মিছিল করে বাংলাদেশের রাজধানী শহর ঢাকাতে। সংখ্যালঘুদের সুরক্ষার দাবিতে সরব হন তাঁরা। তাঁদের দাবি, আওয়ামি লিগ তাদের ইস্তেহারে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তা চলতি বছরের জুলাই মাসের মধ্যে পূরণ করতে হবে।

   

সংগঠনের হাজার হাজার প্রতিনিধি এই মিছিলে অংশ নেন। সংগঠনের সেক্রেটারি জেনারেল অ্যাডভোকেট রানা দাসগুপ্ত সংবাদমাধ্যমের কাছে জানান, মার্চ মাস থেকে সমস্ত মহকুমাতে এই ধরনের মিছিল হবে। দাবি না মিটলে জুলাইয়ের মাঝামাঝি থেকে আমরা আমরণ অনশনে বসব।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সংখ্যালঘুদের অবদানের কথা তাঁরা বার বার তুলে ধরেন। তাঁরা বলেন, ‘আমরাই আজ বিপন্ন। দিনের পর দিন ধরে আমাদের উপর অত্যাচার চলছে। আমাদের নানাভাবে দাবিয়ে রাখার চেষ্টা চলছে। নির্যাতন চলছে পুরোদমে। তাঁদের আশঙ্কা ভোট এগিয়ে এলে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার আরও বাড়বে। সংগঠনের নেতৃত্বের দাবি, মুক্তিযুদ্ধের সেই আদর্শ থেকে বেরিয়ে এসেছে বাংলাদেশ। এটা ভাবা যাচ্ছে না।

bangladesh 2

তাঁদের দাবি, আওয়ামি লিগ ২০১৮ সালে ইস্তেহারে জানিয়েছিল জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন তৈরি করা হবে। কিন্ত ভোট জিতে যাওয়ার পরেও সেই প্রতিশ্রুতি আর পালন করা হয়নি। সংখ্যালঘুদের সুরক্ষার জন্য সেই ব্যবস্থা দ্রুত করা দরকার বলেও জানিয়েছেন সংগঠনের নেতৃত্ব।

পরিষদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় গত ৬-৭ জানুয়ারি দাবির সমর্থনে কর্মসূচি পালন করা হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও কোনও পদক্ষেপ নেয়নি সরকার। ১৯ ফেব্রুয়ারি আওয়ামি লিগের জেনারেল সেক্রেটারি ওবাইদুল কাদেরের সঙ্গেও তাঁরা সাত দফা দাবির ভিত্তিতে মিটিং করেন। তাঁদের দাবি, আওয়ামি লিগ তাঁদের দাবির প্রতি সহমত পোষণ করেন।কিন্তু তারপরেও কাজের কাজ কিছু হয়নি।